কেন চিড় ধরেছিল আমির-জুহির ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্বে?

‘কয়ামত সে কয়ামত তক’ হোক বা ‘হম হ্যায় রাহি প্যায়ার কে’ ‚ আমির খান ও জুহি চাওলার অসাধারণ কেমিস্ট্রি ধরা পড়ে ওঁদের অভিনীত প্রতিটি ছবিতে | জুহির সারল্যে ভরা হাসিমুখ ও আমিরের বয় নেকস্ট ডোর ইমেজ জিতে নিয়েছিল দর্শক সহ সিনেমা ক্রিটিকদের মন |

একাধিক ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করার ফলে ওঁদের দু’জনের মধ্যে দারুণ বন্ধুত্বও ছিল | জুহি বহুবার নিজের মুখেই এই কথা স্বীকার করেছেন | কিন্তু একই সঙ্গে ছবির সেটে মঝে মধ্যেই তুচ্ছ কারণের জন্য দু’জনের মধ্যে ঝগড়া হতো | অবশ্য ঝগড়া মিটিয়ে নিতেও সময় লাগতো না ওঁদের | 

এই ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে জুহি একটা সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘আমির আর আমি ছবির সেটে বাচ্চাদের মত লড়াই করতাম | ও আমকে নিয়ে মজা করত‚ আমি রেগে যেতাম | কিন্তু সত্যি কথা বলতে আমির আমার ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের একজন | আমি জানি যখন দরকার হবে আমার পাশে পাবো ওঁকে |’

কিন্তু একটা ঘটনা সব বদলে দেয় | সামান্য কারণের জন্য ওঁদের বন্ধুত্বে চিড় ধরে | ঘটনাটা ঘটে ওঁদের জনপ্রিয় ছবি ‘ঈশক’ -এর শ্যুটিং চলাকালীন | 

একদিন শ্যুটিং এর সময় আমির মজা করে জুহিকে বলেন উনি হাত দেখে জুহির ভবিষ্যত বলে দিতে পারবেন | জুহি ওঁর কথা বিশ্বাস করে ওঁর হাত বাড়িয়ে দেন আমিরের দিকে | আমির জুহির হাতে থুতু ছিটিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে যান | সবার সামনে এইভাবে অপদস্থ হওয়ায় জুহি আমিরের ওপর প্রচন্ড রেগে যান | এই ঘটনার পর জুহি আর আমির একে অপরের সঙ্গে পাঁচ বছর কথা বলেননি |

এর ফলে জুহি ‘রাজা হিন্দুস্থানি’ ছাড়াও বেশ কয়েকটা ছবি ফিরিয়ে দেন | যাই হোক, পরে জুহি পুরনো কথা ভুলে আবার বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দেন আমিরের দিকে | দু’জনের মধ্যে আবার ভাব হয়ে যায় | কিন্তু আগের সেই গাঢ় বন্ধুত্ব আর কোনোদিনই ফেরত আসেনি ওঁদের মধ্যে |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here