১৯৯৫-এ গুন্ডারাজ’-এর সেটে তাঁদের প্রথম দেখা। তারপর একের পর এক ছবি করে গিয়েছেন কাজল এবং অজয়। যাদের মধ্যে দিল কেয়া করে’, ‘ইশকএই ছবিগুলি বক্স অফিসে জমিয়ে ব্যবসা করেছিল। অভিনয়ের হাত ধরে ভালবাসা এসেছে। বেশ কিছু ছবি একসঙ্গে করার পর তাঁরা বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেনবিয়ের পর বেশ কিছু বছর সংসার, সন্তানের জন্য অবসর নিয়েছিলেন কাজল| এখন আবার চুটিয়ে অভিনয় করছেন| কিন্তু মিঞা-বিবি যেন যে যার সে তার! স্টার কাপলকে আর এক ফ্রেমে আর দেখা যাচ্ছে না…| কেন? কবে আবার একসঙ্গে অভিনয় করবেন দেবগণ দম্পতি?

Banglalive

এর উত্তরে মিঞা নাকি একটি শর্ত রেখেছেন| এবং বলেছেন এই শর্ত তাঁর একার নয়, কাজলেরও সায় আছে| কী শর্ত মানলে দুই তারা একসঙ্গে কাজ করবেন? কাজল-অজয় উবাচ, আমি আর কাজল এখন এমন একটা বয়সে পৌছেছি যে, স্টিরিওটাইপ চরিত্রে আমাদের আর মানাবে না। চ্যালেঞ্জিং চরিত্রের স্ক্রিপ্ট নিয়ে কোনও পরিচালক হাজির হলে তবেই দুজনে আবার একসঙ্গে অভিনয় করবআর সেই উপলব্ধি থেকেই জুড়ে দিলেন, ‘আমার আর কাজলের তো একসঙ্গে ছবি করতে কোনও অসুবিধা নেই। কিন্তু লভ স্টোরি আর নয়।

কাজলের সঙ্গে অভিনয় নিয়ে অজয় স্পষ্ট করে আরও জানিয়েছেন, ‘‘বয়স যখন কম ছিল তখন কিছুটা ঝোঁকের বশেই হালচাল’, ‘প্যায়ার তো হো না হি তা’, ‘রাজু চাচার মতো ছবিগুলো করে ফেলেছি। বেশ কিছু বছর পর কাজলকে আমি ইউ মি অউর হামছবিতে পরিচালনা করেছি। কাজলের সঙ্গে আবার ছবি করতে তো ভালই লাগবে। কাজলকে যদি এই প্রশ্নটা করেন, ওঁর এই এক উত্তরই হবে। কিন্তু চেনা গতের একই ধাঁচের লভ স্টোরিতে অভিনয় করতে দুজনের কারও ভাল লাগবে না।’’

সব শুনে বলিউড বলছে, ৪৮ বছর বয়সে প্রেমিকের চরিত্রে যে একটু বেমানান দেখাবে সে কথা অবশেষে বুঝেছেন অজয় দেবগণ। এই ঢের!!

আরও পড়ুন:  সলমন খানকে খুনের চক্রান্ত ফাঁস! জাতীয় এথলিট সম্পত নেহেরাকে ‘সুপারি’ দেওয়া হয়েছিল?

NO COMMENTS