এক ফালি তরমুজে রয়েছে অনেক উপকারিতা… জেনে নিন

1807

গরমের দিনে একফালি তরমুজ যেন প্রাণ জুড়িয়ে দেয়। খুব কম মানুষই রয়েছে যারা তরমুজ পছন্দ করেন না। কিন্তু জানেন না এই তরমুজেই রয়েছে এমনকিছু পুষ্টিগুণ যা, শরীর সুস্থ রাখাতে বিশেষ উপযোগী।

* ত্বকের যত্ন-  তরমুজে রয়েছে ৯২% জল, যা আপনার শরীর এবং ত্বককে হাইড্রেটেড রাখতে সাহায্য করে। শুধু তাই নয়, ত্বকে যদি মেচেদার দাগ থাকে তাহলে অবশ্যই তরমুজ খান। দাগ কমে যাবে নিমেষে।

* জলের ঘাটতি পূরণ করে- তরমুজে জলের পরিমাণ খুব বেশি হওয়ার জন্য গরমের দিনে যখন ঘামের মাধ্যমে শরীর থেকে বেশিরভাগ জল বেড়িয়ে যায়, সেই জলের ঘাটতি পূরণ করতে সাহায্য করে তরমুজ।

* হার্ট সুস্থ রাখতে-  তরমুজে থাকা ভিটামিন সি, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম শরীরে কোলেস্টোরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। যা হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমায়।

* কিডনি ভাল রাখে- নিয়মিত তরমুজ খেলে কিডনিতে পাথর হওইয়ার সম্ভাবনা কম হয় বলে, বিশেষত কিডনির সমস্যা আছে এমন রোগীদের তরমুজ খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।

* দৃষ্টিশক্তি বাড়ায়- প্রতিদিন অন্তত একফালি করে তরমুজ খেলে চোখের দৃষ্টিশক্তি বাড়ে। কারণ এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে বিটা ক্যারোটিন এবং ভিটামিন এ। বিটা ক্যারোটিন চোখের রেটিনাকে সুরক্ষিত রাখে এবং চোখকে ছানি পরার হাত থেকে রক্ষা করে।

* হাড় মজবুত করে- তরমুজ লাইকোপিন নামক একটি উপাদানের জন্য এর রঙ লাল হয়ে থাকে। সেইসঙ্গে এতে রয়েছে প্রচুর ক্যালসিয়াম, যা হাড়কে মজবুত করতে সাহায্য করে। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শরীরে ক্যালসিয়ামের চাহিদা বাড়তে থাকে। তাই অল্পবয়স থেকেই তরমুজ খাওয়ার অভ্যেস শুরু করা উচিত।

* ওজন কমাতে- গবেষণায় দেখা গিয়েছে শরীরের অতিরিক্ত মেদ ঝড়াতে সাহায্য করে তরমুজ। এছাড়াও তরমুজে জলের পরিমাণ বেশি হওয়ার জন্য তা ওজন কমাতে সাহায্য করে।

* রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ- তরমুজে থাকা পটাশিয়াম এবং ম্যাগনেশিয়াম যা যা রক্তচাপ স্থিতিশীল রাখতে সাহায্য করে। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে তরমুজ খাওয়া খুবই উপকারী।

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.