গোলাপি বাহনে কি উঠতে পারবেন পুরুষ যাত্রী ? এ বার ঠিক করবেন মহিলা চালকই

217

ট্যাক্সিচালকদের দ্বারা মহিলাদের হেনস্থা হওয়ার খবর নতুন কিছু নয়। প্রায় প্রতিদিনই শহরের বিভিন্ন কোণে ঘটে চলেছে মহিলাদের উপর হেনস্থার ঘটনা । আর তাই কলকাতায় এবার চালু হবে ‘পিঙ্ক ট্যাক্সি’। কেবলমাত্র মহিলাদের জন্য এবং মহিলাদের দ্বারা পরিচালিত এই ট্যাক্সিতে অবশ্য উঠতে পারবেন বয়স্ক ব্যক্তিরা। কিন্তু এছাড়া আর কোনও পুরুষ যাত্রীদের গাড়িতে তোলা হবে কিনা তা অবশ্য ঠিক করবেন মহিলা চালকরাই।

দেশের বাইরে এই পিঙ্ক ট্যাক্সির চল রয়েছে, পাশাপাশি বেঙ্গালুরুতেও চালু রয়েছে পিঙ্ক অ্যাপ ক্যাব। এবার সেই পথেই তিলোত্তমা। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে রাজ্য পরিবহণ দপ্তর তাদের গতিধারা প্রকল্পের মাধ্যমে এই বিশেষ ট্যাক্সি চালু করতে উদ্যোগী হয়েছে। চলতি আর্থিক বছরে অন্তত ৫০টি পিঙ্ক ট্যাক্সি পরীক্ষামূলকভাবে চালু করার কথা রয়েছে।

সম্প্রতি কর্মক্ষেত্রে পুরুষদের পাশাপাশি মহিলা কর্মচারীদের সংখ্যা বাড়ছে সমানতালে। বিশেষত তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে বিভিন্ন শিফটে কাজ করেন মহিলারা। ফলে খুব রাতে বাড়ি ফেরার সময়ে ট্যাক্সিতে যাতায়াত নিয়ে নানারকম সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় মহিলাদের। কখনও থাকে জীবনের ঝুঁকি, কখনও আবার মানহানির।

কলকাতার মতো জনবহুল শহরে নিত্যদিন ঘটে চলা নিগ্রহের ঘটনায় নাম জড়িয়েছে অ্যাপ ক্যাবেরও। যাত্রীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার থেকে শুরু করে নির্দিষ্ট গন্তব্যের আগে নেমে যেতে বাধ্য করার মতো ঘটনা প্রায়শই উঠে আসে। মনে করা হচ্ছে পিঙ্ক ট্যাক্সির জন্য এইধরণের অপরাধ প্রবণতা খানিকটা হলেও কম হবে। পাশাপাশি মহিলাদের স্বনির্ভর করে তোলার জন্যেও এ এক নয়া উদ্যোগ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। বিভিন্ন ট্যাক্সি অ্যাসোসিয়েশন-এর পক্ষ থেকেও এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানানো হয়েছে।

রাজ্য পরিবহণ দপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, গতিধারা প্রকল্পে পিঙ্ক ট্যাক্সি কেনার জন্য আবেদনকারীদের বয়স হতে হবে ২০ থে ৪৫ বছর। তফশিলি জাতি ও উপজাতিদের জন্য ৫ বছর আরও অতিরিক্ত ছাড় দেওয়া হবে। আবেদনকারীর পারিবারিক বার্ষিক আয় হতে হবে ২৫ হাজার টাকা। ট্যাক্সি কেনার জন্য গতিধারার নিয়ম মেনেই এক লক্ষ টাকা ভর্তুকি দেবে রাজ্য সরকার। মহিলারা মনে করলে পিঙ্ক ট্যাক্সি আপ ক্যাব হিসেবেও চালাতে পারবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.