পর্যাপ্ত সবেতন মাতৃত্বকালীন ছুটি না থাকায় অফিসে ব্রেস্ট-পাম্প এক সদ্য মায়ের

যে কোনও মহিলারই মাতৃত্বকালীন ছুটি পাওয়ার অধিকার রয়েছে। কিন্তু বাস্তবক্ষেত্রে চিত্রটা একেবারেই অন্যরকম। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় যে, একজন মহিলার মাতৃত্বকালীন ছুটি নির্ভর করে তাঁর কর্মক্ষেত্রের ওপর। সরকারি এবং বেসরকারি কর্মপ্রতিষ্ঠানে মাতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে বৈষম্য রয়েছে। সরকারি প্রতিষ্ঠানে মাতৃত্বকালীন ছুটির তালিকাবদ্ধ থাকলেও বেসরকারি ক্ষেত্রে প্রায়শই শোনা যায় মাতৃত্বকালীন ছুটির পরিমাণ একেবারেই কম। যার ফলে অনেকরকমের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় মা এবং সদ্যোজাত সন্তানকে।

সম্প্রতি নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এমনই এক ছবি যেখানে দেখা গিয়েছে, একজন মহিলা তাঁর অফিসের লাঞ্চ ব্রেকে ব্রেস্ট পাম্প করে নিজের সন্তানের জন্য দুধ সংরক্ষণ করে রাখছেন। উনত্রিশ বছর বয়সী লোরেন হফম্যান নামে টেক্সাসের এক মহিলা তাঁর কর্মক্ষেত্র থেকে বেতন-সহ মাত্র সাড়ে পাঁচ সপ্তাহের মাতৃত্বকালীন ছুটি পেয়েছেন। যা একজন নতুন মায়ের জন্য খুবই কম সময়। আর তার পরেই তাঁকে কর্মক্ষেত্রে যোগ দিয়ে হয়েছে। ফলে তাঁর শিশুর কাছ থেকে অনেকটা সময়ই দূরে থাকতে বাধ্য হচ্ছেন তিনি। ওই মহিলার কথায়, একজন মানুষের পক্ষে বেতনহীন ছুটির মধ্যে থাকা প্রায় অসম্ভব।

অর্গানাইজেশন ফর ইকোনমিক কর্পোরেশন অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট-এর সূত্রে জানানো হয়েছে যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র একমাত্র শিল্পসমৃদ্ধ দেশ যা ফেডারেলভাবে দেওয়া পরিবারের ছুটির আদেশ দেয় না। যার ফলে হফম্যানের মতো বহু মার্কিনি মহিলাকে আর্থিক এবং মানসিকভাবে বহু সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Please share your feedback

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ওয়র্থ ব্রাদার্স সংস্থার লেটারহেড

মায়ার খেলা

চার দিকে মায়াবি নীল আলো। পেছনে বাজনা বাজছে। তাঁবুর নীচে এ প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে উড়ে বেড়াচ্ছে সাদা ঝিকমিকে ব্যালে