অন্য কাউকে বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছে পরিবার‚ আদালতের দ্বারস্থ সমকামী দুই নারী

সমকামী দুই নারীর ভালবাসার গল্প সম্প্রতি ফুটে উঠেছে রুপোলি পর্দায়। আর এবার প্রকাশ্যে এল বাস্তবের দুই সমকামী নারীর গল্প। রাজস্থানের ডাউসা জেলায় বসবাসকারী দুই সমকামী নারী নিজেদের জীবনের নিরাপত্তার দাবিতে রাজস্থান হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন।

আবেদনকারী দুই নারী রাজস্থানের ডাউসা জেলার বেইরওয়া এবং কোলি সম্প্রদায়ের। আদালতে তাঁরা জানিয়েছেন, স্কুলে পড়ার সময় থেকে বন্ধুত্ব দু’জনের। দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত একসঙ্গেই পড়াশোনা করেছেন দু’জনে। বন্ধুত্ব গাঢ় হতে হতে পরিণতি পায় ভালবাসার সম্পর্কে। পাঁচ বছর ধরে এই সম্পর্ক চলার পর বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা। পরিবারকে লুকিয়ে গত বছর ২২ ডিসেম্বর স্থানীয় এক মন্দিরে বিয়েও করেন তাঁরা। কিন্তু এই বিষয়টি তাঁরা পরিবারের কাছ থেকে সম্পূর্নভাবে আড়াল করে গিয়েছেন। আর পরিবারের সদস্যদের ভয়ে এখনও তাঁরা একসঙ্গে এক ছাদের নীচে থাকেন না। নিজেদের পরিবারের সঙ্গেই থাকেন।

সম্প্রতি তাঁদের পরিবারের আচার-আচরণে মনে হয়েছে, উভয়কেই বিয়ের জন্য চাপ দেওয়া হতে পারে।  আর সেই কারণেই রাজস্থান হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন ওই সমকামী যুগল। তাঁদের কথায়, যেহেতু তাঁরা সাবালিকা এবং সমকামী বিবাহ আইন অনুসারে তাঁরা বিয়ে করে একসঙ্গে থাকতে পারেন, তাই তাঁদের দিকটা আদালতের বিচার করে দেখা উচিত। আর এর পরেই আদালতের পক্ষ থেকে স্থানীয় প্রশাসনকে দুই তরুণীর নিরাপত্তার ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here