মরাল পুলিশকে বোকা বানিয়ে বিয়ে

বেশ কয়েক বছর ধরেই Valentine’s Day-তে অতিসক্রিয় হয়ে ওঠে বজরং দল আর বিশ্ব হিন্দু পরিষদ(VHP) | প্রেম দিবসে প্রেমের ঘোরতর বিরোধ্ি তারা | ভাঙচুর থেকে শুরু করে প্রেমিক-প্রেমিকাদের কান ধরে ওঠ্-বোস করানো কোনও কিছুই বাকি রাখেনি তারা | এই বিশেষ দিনটিতে moral পুলিশের দায়িত্ব নিয়ে নেয় তারা | এবার তাদেরকেই অস্ত্র বানালো প্রেমিক-প্রেমিকারা |

ভ্য়ালেন্টাইনস ডে-তে, হায়দ্রাবাদের রাস্তায় যথার্িতি moral পুলিশের দায়িত্ব পালন করতে নেমে পড়েছিল বজরং দল আর VHP | আর জেনেশুনেই তাদেরই সামনে হাত ধরাধরি করে ঘুরে বেড়াচ্ছিল বেশ কিছু প্রেমিক-যুগল | দেখেই স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে তাদের ওপর ঝাঁ্পিয়ে পড়ে বজরং দল আর VHP’র সমর্থকরা | জোর করে মন্দিরে টেনে নিয়ে গিয়ে বিয়ে দিয়ে দেয় এমন পাঁ্চজোড়া প্রেমিক-যুগলের | মনে হওয়াটা স্বাভাবিক, এতো ভ্িষণই খারাপ ব্য়াপার | কেউ জোর করে এমন ক্ি করে করতে পারে

এখানেই মার খেয়ে গেলে বাঙালি VHP সমর্থকদের হাতে | তারা ভালো করেই জানত, ক্ি হতে পারে তার পরিণাম | কিছুতেই পরিণতি পাছিল না তাদের ভালবাসা | পরিবারের আপত্তিতে এক হতে পারছিল না তারা | ভ্য়ালেন্টাইনস ডে-তে ধরা পড়ল তারা আর জোর করে তাদের মন্দিরে নিয়ে গিয়ে বিয়ে দিয়ে দিল অন্য়লোক | সাপও মরল, লাঠিও ভাঙল না |

Kushaiguda-র কাঠের মিস্ত্র্ি রাজু আর Banjara Hills-এর গৌতম্ি গত তিন বছর ধরে একে অপরকে ভালোবসে ও বিয়ে করতে চায় | কিন্তু একে ওপরএর দ্ুর সম্পর্কের ভাই-বোন বলে রাজি হচ্ছিল না দুই পরিবার | তাই তার ভ্য়ালেন্টাইনস দে-তে বেরিয়ে পড়েছিল এক সাথে | বজরং দলের সমর্থকদের চোখে পড়ে যায় তারা | তখন সকাল ১০ টা | ধরা পড়ে তারা বলে যে, ওরা একে ওপরকে ভালোবাসে, আর বিয়ে না হলে একসাথে ওরা আত্মহত্য়া করবে | সোজা তাদের তুলে নিয়ে গিয়ে, কাছেই সাই বাবা মন্দিরে বিয়ে দিয়ে দেওয়া হয় তাদের | এভাবেই নিজেদের মনস্কামনা প্ুর্ণ করে রাজু আর গৌতম্ি |

টিভি তে এই খবর প্রচারের সঙ্গে সঙ্গে ছুটে আসে গৌতম্ির পরিবারের লোকজন | পুলিশে ডায়রি করে, যে তাদের মেয়ে অপ্রাপ্তবয়স্ক, কাজেই এই বিয়ের কোনও আইনি ভিত্তি নেই | এখন গৌতম্ির বয়সের বিষয়ে তদন্ত চালাচ্ছে পুলিশ | সে যাই হোক, কিন্তু বজরং দল আর VHP’কে ব্য়বহার করে বিয়ের এই অসামান্য় পরিকল্পনায় বমকে গেছেন সবাই |

এমন আরও চার জোড়া যুগল একই পরিকল্পনায় বিয়ে করেছে গতকাল | এই অভিনব পন্থায় moral-পুলিশ বজরং দল আর VHP-কে শেষ পর্যন্ত moral – foolish বানিয়ে ছাড়ল প্রেমিক-প্রেমিকারা | সাধে কি বলে – ‘Valentine’s Day’-র মহিমা অপার ; দ্ুর্জনে-তে যাই বলুক, প্রেমের জয়জয়কার’ |

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Please share your feedback

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Illustration by Suvamoy Mitra for Editorial বিয়েবাড়ির ভোজ পংক্তিভোজ সম্পাদকীয়

একা কুম্ভ রক্ষা করে…

আগের কালে বিয়েবাড়ির ভাঁড়ার ঘরের এক জন জবরদস্ত ম্যানেজার থাকতেন। সাধারণত, মেসোমশাই, বয়সে অনেক বড় জামাইবাবু, সেজ কাকু, পাড়াতুতো দাদা