২০০ বছর পর খোঁজ মিলল মধ্যযুগের সবচেয়ে বিখ্যাত দাবার সেটের হারিয়ে যাওয়া ঘুঁটির

ancient chess set

মধ্যযুগের এক বিখ্যাত দাবার কয়েকটি ঘুঁটি নিখোঁজ ছিল প্রায় ২০০ বছর ধরে। সম্প্রতি উদ্ধার হয়েছে তার মধ্যে একটি। নিলামে এর দর উঠেছে প্রায় ৭৩৫,০০০ পাউন্ড বা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ছ’কোটি চৌত্রিশ লক্ষ টাকা । এই ঘুঁটিটি হল ‘দ্য ওয়ার্ডার’, অর্থাৎ আধুনিক দাবার বোর্ডে যা ‘রুক’ বা  বাংলায় যাকে আমরা নৌকা বলি সেরকম। লিউইস চেসম্যান-এর বহুল চর্চিত দাবার ঘুঁটি এটি। দ্বাদশ শতকের শেষে অথবা ত্রয়োদশ শতকের গোড়ার দিকে ওয়ালরাস আইভরি (সিন্ধুঘোটকের দাঁত) থেকে বানানো হয়েছিল এই ঘুঁটি ।

১৯৬৪ সালে এক অ্যান্টিক ডিলার মাত্র পাঁচ পাউন্ড দিয়ে কিনেছিলেন এই ঘুঁটি । পারিবারিক ভাবে হাত বদল হয়ে যার হাতে শেষ পর্যন্ত এসেছে সে জানতই না সামান্য এই দাবার ঘুঁটি এতই মূল্যবান ! সদবি-এর অকশন হাউসে এই ঘুঁটিটিকে নিয়ে আসার পর বুঝতে পারেন এই সামান্য ঘুঁটির মাহাত্ম্য! মধ্যযুগের সবচেয়ে বিখ্যাত দাবার সেট ‘লিউইস চেসমেন’, যা সম্ভবত ৫০০ বছর ধরে মাটির তলায় ছিল। জাহাজডুবির পর কোনও ব্যবসায়ী হয়ত কর ফাঁকি দেওয়ার জন্য মাটির তলায় পুঁতে রেখেছিল এগুলোকে। এই দাবার ৯৩ টি অংশ ১৮৩১ সালে হেব্রাইডের নিকটবর্তী আইল অব লিউইস থেকে উদ্ধার করা হয়েছিল। কিন্তু বাকি পাঁচটি ঘুঁটি পাওয়া যায়নি সে’ সময়ে। সেগুলোর কী হল তা রহস্য হয়েই ছিল এত দিন।

সদবি-এর আলেকজান্ডার কেডার এতদিন পর খুঁজে পাওয়া ‘ওয়ার্ডার’ ঘুঁটিটির বিবরণ দিয়েছেন। এই ‘ওয়ার্ডার’ গুটির আকৃতি মানুষের মত যার শিরস্ত্রাণ, ঢাল, তরোয়াল রয়েছে। একটু যেন আহত, আর এক চোখ অন্ধ। প্রাচীন এই গুটি ইতিহাসবিদ ও প্রত্নতাত্ত্বিকদের মধ্যে ব্যাপক আলোড়ন তৈরি করেছে। সকলেই এই বহুল চর্চিত ঘুঁটির পুনরুদ্ধারে বেশ রোমাঞ্চিত। ইতিহাস গবেষণার বহু দিক খুলে দিতে পারে মধ্যযুগের হঠাৎ খুঁজে পাওয়া এই দাবার ঘুঁটি । বর্তমানে লিউইস চেসমেন-এর ৮২টি অংশ রাখা আছে বৃটিশ মিউজিয়ামে এবং বাকি ১১টি রয়েছে স্কট্ল্যান্ডের ন্যাশনল মিউজিয়ামে |

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.