বর্ষায় অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ ফুচকা বিক্রি ! ফেলা হল ৪০০০ কেজি ফুচকা‚ ১২০০ লিটার তেঁতুলজল

439

বেচা যাবে না ফুচকা বা পানিপুরী | এই নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে গুজরাতের ভদোদরায় | শহরের পুরসভার তরফে জানানো হয়েছে জনস্বাস্থ্যবিধির কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত | পুরকর্মীদের অভিযোগ‚ বিক্রেতারা পরিচ্ছন্নতার দিকে নজর দেন না | ভদোদরায় জলের কারণে বিভিন্ন রোগ ছড়াচ্ছে। এই কারণেই স্বাস্থ্য বিভাগ পানিপুরী বিক্রির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। যতদিন না পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে, ততদিন এই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে ।

পুর আধিকারিকরা ভদোদরার বিভিন্ন এলাকায় ৫০-এরও বেশি পানিপুরী বিক্রেতার জিনিসপত্র পরীক্ষা করে দেখেছেন । ৪,০০০ কিলো পুরী, ৩,৩৫০ কিলো আলু, ২০ কিলো তেল ও ১,২০০ লিটার তেঁতুলজল বাজেয়াপ্ত করে ফেলে দেওয়া হয়েছে । পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বজায় না রাখার অভিযোগে পানিপুরী বিক্রেতাদের নোটিস দেওয়া হয়েছে । 

বর্ষার মরসুমে এখনও অবধি ভদোদরায় অনেকেই আক্রান্ত হয়েছেন জলবাহিত রোগে | পরিস্থিতি মোকাবিলার উপায় বের করা যায়নি | তাই রাস্তার খাবারের উপর নজর দেওয়া হচ্ছে | শুধু ফুচকাই নয় | গত কুড়ি দিনে পুর অভিযানের ধরপাকড়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে চিকেন‚ চানা‚ চাওমিন-সহ বহু রকমের খাবার | 

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.