স্কুল হস্টেলেই প্রসব ছাত্রীর, সদ্যোজাত সহ রাত কাটল জঙ্গলে!

ওড়িশার কন্ধমাল জেলার একটি সরকারি উপজাতি আবাসিক স্কুলের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে । ওই স্কুলের হস্টেলের ঘরে সন্তান প্রসব করেছে ক্লাস এইটের এক ছাত্রী । ওই ছাত্রীর বয়স ১৪ বছর । শনিবার রাতে ওই ছাত্রী একটি কন্যাসন্তানের জন্ম দেয় বলে জানা গিয়েছে। জেলা প্রশাসনের আধিকারিক চারুলতা ভৌমিক এ খবরের সত্যতা স্বীকার করে নিয়েছেন। এই ঘটনার জেরে ওই আবাসনের এক ছাত্রকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সেই সঙ্গে আবাসনের ৬জন কর্মীকেও সাসপেন্ডও করা হয়েছে।

সরকারি উপজাতি আবাসিক স্কুলের পরিচালনার দায়িত্ব আদিবাসী উন্নয়ন পর্ষদ-এর। অষ্টম শ্রেণীর ওই ছাত্রীর দাবি, এই ঘটনার জেরে, আবাসন কর্তৃপক্ষের চাপে সন্তান প্রসব করতেই তাকে তার সন্তান সহ হোস্টেল থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। ফলে তার সদ্যোজাত সন্তানকে ওই ছাত্রী সংলগ্ন জঙ্গলে থাকতে বাধ্য হয়েছে। এরপরে পুলিশের সাহায্যে তাকে ভর্তি করা হয় নিকটবর্তী হাসপাতালে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে মা এবং শিশু দুজনেই সুস্থ আছে।

এই ঘটনার বিস্তারিত রির্পোট প্রশাসনকে তদন্ত করে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মন্ত্রী রমেশ মাঝি। জেলা কালেক্টর ডি ব্রুন্ডা জানান, দুই রাঁধুনিসহ চারজনকে সাসপেন্ড করা হয়েছে । স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা রাধারানি দালেইকেও সাসপেন্ড করার সুপারিশ করা হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে । এরকম একটি ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করার অভিযোগে স্থানীয়রা জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায়। এরপরে সরকারের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, “ঘটনাটি সরকার গুরুত্ব দিয়ে দেখছে। কলেজের থার্ড ইয়ারের এক ছাত্রকে ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here