২২০ কিলোমিটার সাঁতরে আসা কুকুরকে মাঝসমুদ্র থেকে উদ্ধার করল শ্রমিকরা

2348

সম্প্রতি থাইল্যান্ডের সমুদ্র উপকূল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে একটি কুকুর। থাইল্যান্ডের উপকূল থেকে ২২০ কিলোমিটার সাঁতরে প্রায় মাঝ সমুদ্রে চলে এসেছিল সে। সেই সময় থাইল্যান্ডের উপসাগরীয় অঞ্চলে একটি পণ্যবাহী জাহাজ থেকে শ্রমিকরা কুকুরটিকে দেখতে পান। তার চারপাশে দড়ি ফেলে তাকে উদ্ধার করে জাহাজে তুলে আনে শ্রমিকরা । এরপর তাঁর নাম দেওয়া হয় বুনরোড। সমুদ্রের এত গভীরে বুনরোড কীভাবে এল এটা এখনও সকলেরই অজানা। এই বিষয়ে শ্রমিকরা জানিয়েছেন, ‘প্রায় ২২০ কিলোমিটার সাঁতরে বুনরোড খুবই ক্লান্ত হয়ে পড়েছিল। আমরা যদি ওকে উদ্ধার না করতাম তাহলে হয়তো ওর সঙ্গে খারাপ কিছু হত’।


ভিটাসাক পায়ালও নামে একজন কর্মী সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ” আমার সহকর্মীরা বারোই এপ্রিল বিকেলে
দেখেন বুনরোড সাঁতরে জাহাজের দিকে আসছে। তবে ওকে দেখেই আমার সহকর্মীরা উপলদ্ধি করেছিল, এতটা পথ সাঁতারে, ও খুব ক্লান্ত হয়ে পড়েছে। তখনই আমরা সিদ্ধান্ত নেই, আমারা যদি আমাদের জাহাজের গতি কমিয়ে দিই, তবে অবশ্যই ওকে বাঁচাতে পারবো। আর বুনরোড-কে দেখে তখন মনে হচ্ছিল, ও যেন আমাদের বলছে দয়া করে আমাকে সাহায্য করুন। এরপরেই আমরা ওর চারপাশে একটি একটি করে দড়ি ফেলতে থাকি এবং ওকে টেনে জাহাজে তুলে নিই।”
বুনরোড-কে উদ্ধার করার এই ঘটনাটি ভিটাসাক পায়ালও ফেসবুক পোস্ট করেন। যা ইতিমধ্যেই ভাইরাল। সেই পোস্টে বুনরোডের ছবিও শেয়ার করেছেন তিনি। সেই পোস্টেই তিনি লেখেন, বুনরোড-কে বিপদের হাত থেকে বাঁচাতে পেরে তিনি খুবই আনন্দিত।

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.