আফিং খেয়ে সান্ধ্যকালীন ঝিমুনির কথা পাওয়া যায় অনেক বাংলা গল্প উপন্যাসে | নেশাখোড়দের জন্য বরাদ্দ হতো একটু বাড়তি দুধ‚ বেশ ঘন‚ পুরু সর দেওয়া | অবশ্য নেশা বলা বোধহয় ভুল হল | কারণ আফিং সেবনের কারণ তাঁরা দেখাতেন স্বাস্থ্যগত | আফিং খেলে নাকি শরীর স্বাস্থ্য সুস্থ সবল থাকে |

Holi Hai

সেই কর্তারা এ যুগে এলে সমস্যায় পড়তেন সন্দেহ নেই | কারণ বহুদিন আগেই নিষিদ্ধ হয়ে গেছে আফিং ও গাঁজা | কিন্তু গঞ্জিকার পালে বাতাস আনলেন স্বয়ং বাবা রামদেব | তাঁর পতঞ্জলি ব্র্যান্ডের তরফে দাবি করা হল‚ গাঁজাকে ভারতে আইনসিদ্ধ করতে হবে | হঠাতে হবে বেআইনি পরিচয় |

পতঞ্জলির সিইও আচার্য বালকৃষ্ণ বলেছেন‚ ভারতে গাঁজা আইনত বৈধ হওয়া প্রয়োজন | কারণ আয়ুর্বেদ শাস্ত্র অনুযায়ী বহু ওষুধের মূল্যবান ও গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হল গাঁজা | কিন্তু বর্তমানে এ দেশে গাঁজা বেআইনি হওয়ায় সেসব ওষুধ প্রস্তুত করা  যাচ্ছে না | সুতরাং পতঞ্জলির দাবি‚ ভারতে গাঁজা উপর যে আইনি নিষেধাজ্ঞা আছে তা প্রত্যাহার করে নেওয়া হোক | 

বালকৃষ্ণর কথায়‚ গাঁজার গাছের বেশ কিছু অংশ‚ মূলত শণ Hemp আয়ুর্বেদে গুরুত্বপূর্ণ উপকরণ | তাই ওষধির স্বার্থে একে আইনের জটমুক্ত করা হোক |

ভারতে কবে থেকে ভাংকে ওষুধ হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে তার লেখাজোখা নেই | ভারতের মাটিতে বরাবরই এই ফসল উৎকৃষ্ট | ব্রিটিশরাও প্রথম দিকে যথেচ্ছ আফিং-এর ব্যবসা করত | ভারতের আফিং রফতানি করত চিনে | বিশাল চাহিদা ছিল সেখানে | অনেকেই বলেন‚ বাংলার আলোকিত কিছু মনীষীও ব্রিটিশদের এই ব্যবসার সহযোগী ছিল |

কিন্তু পরে ব্রিটিশরাই উনিশ শতকের শেষ দিকে ভারতে গাঁজা বা আফিংকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে | ১৯৮৫ তে Narcotic Drugs and Psychotropic Substances Act ভারতে গাঁজা বা আফিংকে নিষিদ্ধ বলে চিহ্নিত করে | তাই গাঁজা চাষ হয়ে গেল লাইসেন্স-নির্ভর | লাইসেন্স বিনা গাঁজা চাষ দণ্ডনীয় অপরাধ |

আচার্য বালকৃষ্ণ মনে করেন গাঁজাকে বৈধ ঘোষণা করলে আখেরে লাভ হবে দেশের রাজস্ব ভাণ্ডারের | তবে তিনি কোনওভাবেই নেশাগত দিক নিয়ে বলেননি | বলেছেন‚ গবেষণায় দেখা গেছে ক্যানাবিজ প্ল্যান্টের বেশিরভাগ অংশই উপকারী | THC-র মতো টক্সিক অংশ বাদ দিয়েই ব্যবহার করতে হবে ক্যানাবিজ অয়েল | 

সোশ্যাল মিডিয়া পতঞ্জলির এই দাবিতে দ্বিধা-বিভক্ত | কেউ কেউ মস্করা করেছেন | তবে অনেকেই সমর্থনও জানিয়েছেন এই দাবিকে | তাঁদের কথায়‚ পতঞ্জলি তো গাঁজা টেনে নেশা করতে বলেনি | বলেছে এর ওষধিগুণকে কাজে লাগাতে |

আরও পড়ুন:  জন্মদাত্রী কুন্তী-সহ পুরো নারীজাতিকে অভিশাপ দিয়েছিলেন যুধিষ্ঠির‚ সেই শাপ কি কলিযুগে ব্যর্থ ?

NO COMMENTS