ঘুড়ি কাটতে গিয়ে সুতোর মাঞ্জার ধারে খণ্ডিত টিয়াপাখির গলা

436

স্বাধীনতা দিবস বা বিশ্বকর্মাপুজোর পাশাপাশি, মকর সংক্রান্তির দিনেও সারা দেশ জুড়ে ঘুড়ি ওড়ানোর রেওয়াজ প্রায় বহু দিনের। বিশেষ করে অবাঙালিদের মধ্যে এই ঘুড়ি ওড়ানো উৎসবের আকার ধারণ করে। কিন্তু এই ঘুড়ির মাঞ্জা থেকে হওয়া বিপত্তির খবর আমরা কে-ই বা রাখি। এর মধ্যে সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় পশু-পাখিরা তা হয়তো আমরা অনেকেই জানি না। এইবারও তার ব্যতিক্রম হল না। ঘুড়ির সুতোয় আটকে মর্মান্তিকভাবে মৃত্যু হয়েছে একটি টিয়াপাখির। আর সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হতেই নিন্দার ঝড় উঠেছে বিভিন্ন মহলে।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, গলায় ঘুড়ির সুতো আটকে ঝুলছে একটি টিয়াপাখি। ধারালো মাঞ্জা গলায় আটকে গিয়েই গাছের ডালে বসে থাকা অবস্থাতেই মৃত্যু হয়েছে তার। দিনের পর দিন ঘুড়ি ওড়ানোর জন্য চিনা মাঞ্জার ব্যবহার বাড়ছে, আর তার জেরেই এই বিপত্তি বলে মনে করছেন অনেকে।

অভিনেত্রী বিদিতা বাগ টুইটারে একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, “আমাদের মাথা লজ্জায় হেঁট হয়ে গেছে। এই ধাক্কা দেওয়া ছবিটা শেয়ার করেছেন ভাবিক ঠাকের। তিনি এই ছবির ক্যাপশন করেছেন, ‘কাই পো চে?’  দুর্ভাগ্যবশত, প্রতি বছর এই ঘুড়ি উৎসবে শয়ে শয়ে পাখি এরকম ভাবেই মারা যায়। চিনা মাঞ্জার ব্যবহার বন্ধ হোক।” প্রসঙ্গত, ‘কাই পো চে’-র অর্থ ঘুড়ি কেটে গিয়েছে।  ঘুড়ি কাটতে গিয়ে এ ভাবে নিরীহ পাখির গলা কেটে মৃত্যু খুবই দুঃখজনক বলেই মনে করছেন সকলে।

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.