চোরাশিকারিদের আঘাতে বন্য পশুদের মৃত্যু প্রায়ই দেখা যায় | কিন্তু তাই বলে একেবারে মেরে খেয়ে নেওয়ার কথা আমাদের অনেকেরই কল্পনারও অতীত | এই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছের গরুমারা জাতীয় উদ্যান সংলগ্ন এলাকায় | বাইকে করে চিতাবাঘটির চামড়া নেপালে পাচার করা হচ্ছিল বলে জানা গিয়েছে | জলপাইগুড়ির বৈকুন্ঠ বনবিভাগের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের রেঞ্জার সঞ্জয় দত্তের নেতৃত্বে মৃত চিতাটির চামড়া উদ্ধার করা হয় | তদন্তে জানা গেছে ৪ থেকে ৫ দিন আগেই মার হয়েছিল চিতাবাঘটিকে | ১০ ফুট লম্বা এই চিতাবাঘের চামড়ার মূল্য প্রায় ১০ লক্ষ টাকা |

গজলডোবা ও ওদলাবাড়ি এলাকা থেকে অভিযুক্তদেরকে গ্রেপ্তার করেন রেঞ্জার স্পেশাল টস্ক ফোর্সের সদস্যরা | রক্তমাখা এই চামড়ায় হলুদ গুঁড়ো মাখানো ছিল | অভিযুক্তরা নাগরাকাটা ও গরুমারার নিকটবর্তী লাটাগুড়ি অঞ্চলেই বসবাস করে | তাদের নাম  কিষান তামাং ( ৩৭ ) ‚ সঞ্জয় অধিকারী ( ২২ ) ‚ মোহন মুন্ডা ( ২৮ ) ‚ রঞ্জিত মাহান্ত ( ২৪ ) এবং বিকাশ রাই (৩০ ) | চোরাশিকারিদের এই ভয়ানক খিদে যে আরও কত বন্য পশুর প্রাণকে বিপন্ন করবে তা রীতিমত আশঙ্কার বিষয় |

আরও পড়ুন:  রান্নাঘরের সিসিটিভিতে মায়ের চোখে ধরা দিলেন মৃত ছেলে ?

NO COMMENTS