গলায় খেলনা আটকে মৃত্যু ছোট পর্দার অভিনেতার মেয়ের

ভাগ্য মাঝে মধ্যে এতটাই নিষ্ঠুর পরিহাস করে যে বাক্যহারা হয়ে যেতে হয় | এমনটাই হয়েছে ছোট পর্দার অভিনেতা প্রতীশ ভোরার সঙ্গে | গলায় খেলনা আটকে সম্প্রতি ‘প্যায়ার কা পাপড’ ধারাবাহিকের অভিনেতা প্রতীশের দু’ বছরের মেয়ে মারা যায় | স্পটবয়কে দেওয়া একটা সাক্ষাৎকারে প্রতীশ ঘটনাটা কী করে ঘটল বিস্তারিতভাবে তাই জানিয়েছেন |

ওঁর কথায় ‘ আমরা ঘরেই ছিলাম | কয়েকজন বন্ধু এসেছিল তাদের সঙ্গে বসে পিজা খাচ্ছিলাম | আমার মেয়ে মুম্বইতে থাকে না | রাজকোট থেকে গরমের ছুটি কাটাতে ও আর ওর মা মুম্বইতে এসেছিল | খেলতে খেলতে আমার মেয়ে একটা চোকৌ খেলনা গিলে ফেলে | আমি সঙ্গে সঙ্গে গলায় আঙুল ঢুকিয়ে তা বের করার চেষ্টা করি | কিন্তু সে ভয় পেয়ে আমর আঙুল কামড়ে দেয় | আমি ওর গলায় আটকানো খেলনাটা অবধি পৌঁছাতে পারলাম না | কিন্তু ওই কয়েক সেকেন্ডেই যা ক্ষতি হওয়ার হয়ে যায় |

আমরা মীরা রোডে থাকি তাই হাসপাতালে যেতে সময় লাগল না | কিন্তু ততক্ষণে আমার মেয়ের ব্লিডিং আরম্ভ হয়ে গেছিল | ডাক্তাররা ব্লিডিং বন্ধ করে | কিন্তু আমার মেয়ে ঠিক মত নিশ্বাস নিতে পারছিল না | যাই হোক, কিছুক্ষণ পরে ডাক্তাররা আমাদের জানান সব ঠিক আছে | আমার মেয়েকে নর্মালই দেখাচ্ছিল | আমরা ওকে বাড়ি নিয়ে যেতে চাইছিলাম | কিন্তু ডাক্তার ওকে ওবসার্ভেশনের জন্য হাসপাতালে রেখে দিলো | হঠাৎ করেই আবার ব্লিডিং শুরু হয় | রাত ১টার সময় ডাক্তার এসে মেয়ের মৃত্যুর খবর দিল আমাদের | ডাক্তাররা সবাই খুব চেষ্টা করেছিল | সকাল ৭টা নাগাদ মেয়ের দেহ নিয়ে আমরা রাজকোটে যাই |’

প্রতীশ আরো জানিয়েছেন এখনও ওঁরা মেয়ের মৃত্যু মেনে নিতে পারেননি | বিয়ের ১৩ বছর পর যখন সন্তান হওয়ার আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন ওঁরা তখন ওঁদের মেয়ে জন্মেছিল |  মেয়ের জন্মের পর ওঁর এবং ওঁর স্ত্রী দু’জনেই সৌভাগ্যের মুখ দেখেন | উনি আরো জানিয়েছেন এই পরিস্থিতিতে ধারাবাহিকের কাস্ট এবং ক্রিউ প্রথম থেকেই ওঁর পাশে ছিলেন |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here