শীতের শুরুতেই ত্বক আর চুলের জন্য আলাদা করে একটু যত্ন নিন | শীতকালে সব থেকে বড় সমস্যা ত্বকের আর্দ্রতা কমে যায় | এরফলে ত্বকের আর চুলের বিভিন্ন সমস্যা দেখা যায় | আজকে রইলো কয়েকটা ঘরোয়া উপায় যার সাহায্যে ত্বক এবং চুল দুই ভালো থাকবে |

Banglalive

ত্বকের যত্ন

অ্যালো ভেরা : শীতের আগে ড্রাই স্কিনের একটু বেশি যত্ন দরকার, অন্য যে কোন ও স্কিন টাইপ এর তুলনায় | আপনার স্কিন যদি নর্মাল থেকে ড্রাই হয় তাহলে দিনে দু’বার এমন একটা ক্লিনসিং জেল দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন যাতে অ্যালো ভেরা আছে | এই সময়ের আদর্শ ফেস প্যাক-এর হদিশ দিই – এক চা চামচ গুঁড়ো দুধ, গোলাপজল আর আধ চামচ মধু মিশিয়ে একটা প্যাক তৈরি করুন, মুখে ২০ মিনিট লাগিয়ে রেখে জল দিয়ে তুলে ফেলুন | সপ্তাহে তিন দিন এই প্যাক লাগান |

সান প্রোটেকশন : এই সময় সূর্যের তাপ খুব বেড়ে যায় তাই অবশ্যই বাইরে বেরোনোর আগে ভালো করে সান স্ক্রিন লাগাতে ভুলবেন না যেন | মনে রাখবেন যত বেশি সান এক্সপোসার হবে ত্বক তত বেশি আদ্রতা হারাবে | আর দিনের বেলা বাইরে বেরোলে অবশ্যই সান গ্লাস ব্যবহার করুন |

ত্বক ভালো করে ময়শ্চারাইজ করুন : এই সময় অবশ্যই মেক আপ করার আগে লিকুইড ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করুন | পারলে হাতের কাছে সব সময় কোনও ভালো ময়শ্চারাইজিং ক্রিম রাখুন আর মাঝে মাঝে মুখে লাগিয়ে নিন | ঠোঁটের জন্য আমন্ড অয়েল বা আমন্ড ক্রিম সারা রাত লাগিয়ে রাখুন |

রাতের যত্ন : রাতে কোনও নাইট ক্রিম দিয়ে মুখ ভালো করে ম্যাসাজ করুন চার থেকে পাঁচ মিনিট | এরপর তুলো ভিজিয়ে মুখ মুছে নিন | ১০ মিনিট মুখে মধু লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন | এটা রোজ করলে ত্বক নরম এবং উজ্জ্বল থাকবে আর শীতের রুক্ষতাকে ফেস করার জন্য আপনি তৈরি |

আরও পড়ুন:  দয়া করে অটিস্টিক বাচ্চাকে ‘পাগল’ ভাববেন না

রোজ ওয়াটার টোনার : শীতের আগে আগে তৈলাক্ত ত্বক মুখ ধোয়ার পর ড্রাই লাগে | অয়েলি স্কিন ময়শ্চাইরাইজ করতে ১০০ মি লিটার গোলাপ জল আর এক চা চামচ গ্লিসারিন ভালো করে মিশিয়ে একটা এয়ার টাইট বোতলে ফ্রিজের মধ্যে রাখুন,যখনি ড্রাই লাগবে লাগিয়ে নিন |

ফ্রুট ফেসিয়াল : শীতের আগে ফ্রুট ফেসিয়ালও খুবই উপকারী | কলা,আপেল,পেঁপে,কমলা লেবু একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগাতে পারেন বা আলাদা আলাদা করেও লাগাতে পারেন | ফ্রুট ফেসিয়াল নিয়ে পরে ভালো করে আলোচনা করা হবে |

চুলের যত্ন :

১. মধু খুব ভাল ময়শ্চারাইজার-এর কাজ করে | মধু নিয়ে ভাল করে চুলের গোড়া থেকে স্ক্যাল্পে লাগান | আধঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন | আরও ভাল হয় যদি মধু দই আর অলিভ একসঙ্গে মিশিয়ে মাথায় লাগান | আধঘণ্টা লাগিয়ে রেখে হাল্কা গরম জলে ধুয়ে ফেলুন |

২. নিয়মিত ভাবে যদি অ্যাভোকাডো অয়েল চুলে লাগাতে পারেন তা হলে চুল তো চকচকে হবেই | সঙ্গে চুলের গোড়াও ভাঙবে না | আরও ভাল ফল পেতে সপ্তাহে দুদিন এই তেল লাগান | চুল আরও নরম করতে অ্যাভোকাডো তেলের সঙ্গে একটা ডিম মিশিয়ে চুলে লাগান | একঘণ্টা পর কোনও মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন |

৩. মাঝারি সাইজের একটা পাকা পেঁপে নিয়ে খোসা ছাড়িয়ে নিন | ছোট টুকরো করে কেটে দইয়ের সঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন | এটা এবার চুলে ভাল করে লাগিয়ে নিন | আধ ঘণ্টা রেখে চুল ধুয়ে নিন | এটা সপ্তাহে একদিন করতে পারলে খুব ভাল হয় |

৪. যাদের চুল খুব ড্রাই তারা এটা ট্রাই করে দেখতে পারেন | এক চামচ মেথি দানা ভাল করে বেটে নিন | এতে এবার দই মেশান | ভাল করে এই মিশ্রণটা মাথায় লাগিয়ে নিন | আধ ঘণ্টা রেখে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন |

৫. নিয়মিত নারকোল তেল লাগালে চুল নরম থাকবে | সারারাত মাথায় তেল লাগিয়ে রাখুন | সকালে উঠে ডিমের সাদা অংশ লাগিয়ে আধঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন |

আরও পড়ুন:  বাসে-গাড়িতে উঠলেই মাথাঘোরা, বমি? কোন সহজ পদ্ধতি মানলে এড়াতে পারবেন মোশন সিকনেস?

৬. শ্যাম্পু করে মাথা যদি একবার বিয়ার দিয়ে ধুয়ে নিতে পারেন তাহলেও ভাল ফল পাবেন |

তবে এই ঘরোয়া টোটকাগুলো কিন্তু নিয়মিত ব্যবহার করতে হবে | শুধু একদিন লাগিয়ে ফল পাবেন না |

NO COMMENTS