মাধ্যমিকের দ্বিতীয়দিন,বিষয় ইংরেজি । প্রশ্নপত্র খুলে চক্ষু চড়কগাছ পরীক্ষার্থীদের । প্যারাগ্রাফ লিখতে হবে বিরাট কোহলিকে নিয়ে । বাধ্যতামূলক প্রশ্ন, মান ১০।

Banglalive

সাধারণত মাধ্যমিকের আনসিন হিসেবে পরীক্ষার্থীরা মনীষী বা বিশেষ ব্যক্তিত্বের জীবনী চোখ বুলিয়ে যায়। সেই তালিকায় যে বিরাট কোহলিও আসতে পারে একেবারেই ভাবেনি পরীক্ষার্থীরা । তবে এহেন ইয়ংস্টার আইডলের সব গল্পই তো জানা তরুণ প্রজন্মের । অপ্রত্যাশিতভাবে হলেও জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা বিরাটকে পেয়ে খুশি মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা ।  কমন হয়তো পড়েনি‚ কিন্তু লিখতে অসুবিধা হয়নি বিশেষ । কেরিয়ারের শীর্ষবিন্দুতে থাকা বিরাটের জীবন সংবাদমাধ্যমের দৌলতে আর ‘Unseen’ নয়‚ বরং ‘Seen’ |

গত ১৩ মার্চ মঙ্গলবার ছিল মধ্যশিক্ষা পর্ষদের মাধ্যমিকের ইংরেজি পরীক্ষা । ১১ লক্ষ ২৯২১ জন পরীক্ষার্থীদের প্রশ্নে বিরাটের জীবনী লেখা ছিল বাধ্যতামূলক । প্রশ্নপত্রে বিরাটের জন্ম থেকে শুরু করে বাবার নাম, মায়ের নাম, কবে ক্রিকেট খেলা থেকে শুরু , টেস্ট অভিষেক কবে হয়েছিল, ভারতীয় দলের অধিনায়ক কবে হন, কত রান করেছেন, কবে পেয়েছেন পদ্মশ্রী বা অর্জুন পুরস্কার,সবকিছুরই হিন্ট ছিল । তবু সোশ্যাল মিডিয়ার ওয়াল ছাড়া তাকে নিয়ে এভাবে লেখার সুযোগই বা ঘটে কবে।তাই যে যত জানে তার সম্পর্কে সে তত সমৃদ্ধ করেছে পরীক্ষার খাতায় বিরাটের জীবনী লেখার মান।প্রচারের আলোকে সরিয়ে রেখে কোহলির ‘বিরাট ‘ হয়ে ওঠার গল্প।ছত্রে ছত্রে তার অধিনায়কত্বের জয়গান।

ছাত্রীরা তো রীতিমতো ব্লাশ করছে হার্টথ্রব বিরাটকে নিয়ে লিখে | ছাত্র হোক বা ছাত্রী‚ বিরাটকে নিয়ে ভেসে যাওয়ার পাশাপাশি খেয়াল রাখতে হয়েছে ব্যাকরণগত শুদ্ধতার দিকেও |

আরও পড়ুন:  যত্ন করে 'মালাবার পনির' রেঁধে বিপাকে তারকা-শেফ সঞ্জীব কাপুর

NO COMMENTS