মোট ২১ জন সন্তান নিয়ে তাঁরাই ইংল্যান্ডের বৃহত্তম পরিবার

সু ও নোয়েল রেডফোর্ড। ব্রিটেনের এই দম্পতি তাঁদের ২১তম সন্তানের জন্ম দিয়ে সবথেকে বড় পরিবারের রেকর্ড গড়ে ফেলেছেন। ব্রিটেনের সব থেকে বড় পরিবারের খেতাব জিতেছেন এই রেডফোর্ড পরিবার।

ব্রিটেনের এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ১৩ বছর বয়েসেই প্রথম সন্তানের জন্ম দেন সু। তখন নোয়েল-এর বয়স ১৮। নোয়েল রেডফোর্ড পেশায় এক জন ব্যবসাদার। ব্রিটেনের সব থেকে বড় পরিবারের খেতাব জয় করার পরেই ব্রিটেনের এক সংস্থা এই পরিবার কে নিয়ে একটি ভিডিও ডকুমেন্টারি তৈরী করে। সেই ডকুমেন্টরি সম্প্রচারের পর থেকেই জনপ্রিয় হতে থাকে এই রেডফোর্ড পরিবার। ২০০৮ সালের মধ্যেই এই দম্পতি ১৩টি সন্তানের জন্ম দেয়।

এই পরিবারের সম্পর্কে সমালোচনায় অনেকেই বলেছেন, কী ভাবে মাত্র ১৩ বছর বয়েসেই মা হতে পারেন সু। তাছাড়া এতগুলো সন্তান কে কীভাবে তারা পালন করছেন! কীভাবেই বা এতগুলো সন্তান কে সময় দিচ্ছেন তারা! সু এবং নোয়েলের এই কীর্তি ঝড় তুলেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। মিশ্র প্রতিক্রিয়া জুটেছে নেটিজেনদের তরফে।

গত বছরের নভেম্বরে জন্ম নিয়েছে বনি। পরিবারের সবথেকে ছোট সদস্য। নোয়েল রেডফোর্ড বলেন, কিছু মানুষ দুই থেকে তিনটি সন্তান নিয়েই তাদের পরিবারকে সম্পূর্ণভাবে। কিন্তু আমাদের সম্পূর্ণতা এসেছে ২১ সন্তানের মাধ্যমে।  সংবাদমাধ্যমকে সু বলেন, আমরা আর কোনো সন্তান চাই না। বনির মাধ্যমে আমাদের পরিবারের পূর্ণতা এসেছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Please share your feedback

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nayak 1

মুখোমুখি বসিবার

মুখোমুখি— এই শব্দটা শুনলেই একটাই ছবি মনে ঝিকিয়ে ওঠে বারবার। সারা জীবন চেয়েছি মুখোমুখি কখনও বসলে যেন সেই কাঙ্ক্ষিতকেই পাই