খাবারের বাক্স খুলতেই চোখ ছানাবড়া গ্রামবাসীদের

উত্তরপ্রদেশের হরদোয়াইয়ের শ্রাবণ দেবী মন্দিরের এক ঘটনায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে সব মহলে। কী ঘটেছে সেখানে?  সেখানে ছিল বিজেপির দলীয় সমাবেশ, যার আয়োজনের দায়িত্বে ছিলেন বিজেপি নেতা নরেশ আগরওয়ালের ছেলে নীতিন আগরওয়াল৷

সম্মেলনে যোগ দিয়েছেলেন গ্রামের স্থানীয় বহু মানুষ। তাঁদের উদ্দেশে নীতিনকে বলতে শোনা যাচ্ছে, গ্রাম প্রধানদের খাবারের প্যাকেট দেওয়া হয়েছে৷ তাঁদের কাছ থেকে সকলে যেন সেই প্যাকেট সংগ্রহ করেন৷ এর পরে গ্রামের প্রধানদের কাছ থেকে প্যাকেট পেয়ে সেটি খুলেই চক্ষু ছানাবড়া গ্রামবাসীদের৷ মিছিলে দান করা বাক্স ভর্তি খাবারের সঙ্গে দেওয়া হয়েছে মদের বোতলও৷প্রথমে প্যাকেট পেয়ে কয়েকজন জানান যে, প্যাকেটের ভিতর রয়েছে মদের বোতল৷ একজন নাবালকও সেই খাবারের প্যাকেট পেয়েছে৷ তার কথায়, সে তার বাবার সঙ্গে এই অনুষ্ঠানে এসেছিল৷ খাবারের প্যাকেটে সে-ও মদের বোতল পেয়েছে৷

ঘটনাটি সামনে আসতেই চরম অস্বস্তিতে পড়ে বিজেপি ৷ খোদ দলের তরফেও এই কাজের নিন্দা করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে ৷ হরদোয়াইয়ের বিজেপি সাংসদ অংশুল বর্মার গলাতেও এদিন শোনা গেল নিন্দার সুর৷ তিনি জানাল, এটি একটি অত্যন্ত নিন্দনীয় ঘটনা। যাদের হাতে পেন-পেন্সিল তুলে দেওয়ার কথা, তাদের হাতে মদের বোতল তুলে দেওয়া হচ্ছে ! তিনি আরও বলেন যে, বিষয়টি তিনি দলের শীর্ষ স্তরের নেতাদেরও জানাবেন। পাশাপাশি তিনি জানতে চেয়েছেন, গোটা বিষয়টা সামনে আসার পরেও কেন প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হল।

নরেশ আগরওয়াল কিছু দিন আগে দলের সদস্যপদ গ্রহণ করেছেন৷ প্রসঙ্গত এই নরেশ আগরওয়াল আগে সমাজবাদী পার্টির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন৷ ২০১৮ সালের মার্চ মাসে পুত্র নীতিনকে সঙ্গে নিয়ে বিজেপিতে যোগ দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

কফি হাউসের আড্ডায় গানের চর্চা discussing music over coffee at coffee house

যদি বলো গান

ডোভার লেন মিউজিক কনফারেন্স-এ সারা রাত ক্লাসিক্যাল বাজনা বা গান শোনা ছিল শিক্ষিত ও রুচিমানের অভিজ্ঞান। বাড়িতে আনকোরা কেউ এলে দু-চার জন ওস্তাদজির নাম করে ফেলতে পারলে, অন্য পক্ষের চোখে অপার সম্ভ্রম। শিক্ষিত হওয়ার একটা লক্ষণ ছিল ক্লাসিক্যাল সংগীতের সঙ্গে একটা বন্ধুতা পাতানো।