এ বার সিদ্ধ ডিমকেও কাঁচা অবস্থায় ফেরাবে বিজ্ঞান

80

যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভর্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার একদল গবেষক সিদ্ধ ডিমকে কাঁচা অবস্থায় পরিণত করার গবেষণা করেন। অধ্যাপক জর্জ ওয়েস-এর নির্দেশেই এই পদ্ধতি আবিষ্কার করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকরা। ‘কেমবায়োকেম’ নামের এক বিজ্ঞান পত্রিকায় এই গবেষণার নিবন্ধটি প্রকাশিত হয়েছিল।

গবেষক দলের ধারণা, তাঁদের এই নতুন আবিষ্কার কৃষি খাত ও খাদ্য পক্রিয়াজাতকরণ শিল্পের উন্নয়নে পরিবর্তন আনতে সাহায্য করবে। গবেষকরা প্রথমে ৯০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ২০ মিনিট সিদ্ধ হওয়া একটি ডিমের সাদা অংশ আলাদা করেন। তাতে একটি রাসায়নিক দ্রব্য যোগ করে ডিমের সাদা অংশকে তরলে পরিণত করে নেন। ‘ভরটেক্স ফ্লুইড মেশিন’ নামের একটি যন্ত্রে এই রূপান্তরিত তরলটি নেওয়া হয়। এই যন্ত্রটিও গবেষক ওয়েজ ও তাঁর সহকর্মীদের তৈরি। এতে ডিমের সেদ্ধ হওয়া সাদা অংশ সম্পূর্ণ পরিবর্তিত হয়ে আগের কাঁচা অবস্থায় পরিণত হয়।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে গবেষকরা জানান, একটি ডিমকে সিদ্ধ করলে এর প্রোটিন বা সাদা অংশে রাসায়নিক পরিবর্তন হয়ে জটিল আকার নেয়। প্রোটিনের গঠনে পরিবর্তনকে আবার আগের অবস্থায় ফিরিয়ে দেওয়ার বর্তমান পদ্ধতিগুলো ব্যয়বহুল ও সময় সাপেক্ষ। সেখানে তাঁদের পদ্ধতি অনেক কম সময়ে পরিবর্তিত প্রোটিনের রূপান্তর ঘটাতে সক্ষম হয়েছে।

গবেষকরা আরও জানান, নতুন পদ্ধতিটি ক্যানসার চিকিৎসার গবেষণায় ব্যবহার করা যেতে পারে। এতে শুরুতেই ক্যানসার শনাক্ত করা সহজ হবে। একই সঙ্গে ক্যানসারের চিকিৎসা পদ্ধতিতেও বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনা সম্ভব। এ বিষয়ে আরও গবেষণা করা হলে ক্যানসার নিরাময়ের হারও বাড়ানো সম্ভব হবে। ক্যানসার নিরাময়ে থেরাপির খরচও সেক্ষেত্রে কমতে পারে। এ ছাড়া মস্তিষ্কের ক্ষত চিকিৎসার ক্ষেত্রেও এই নতুন আবিষ্কার কাজে লাগতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.