কামড় বসিয়েছে হাঙর‚ তবু চলছে ক্যামেরা

দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার ডুবুরি ২৬ বছরের লুক থম | নেপচুন দ্বীপের সংলগ্ন অঞ্চলে একটি দৈত্যাকার গ্রেট হোয়াইট শার্কের ছবি তুলতে মত্ত ছিলেন লুক | ছবি তোলার সময়ই হাঙরটি ক্রমশ তাঁর দিকে এগিয়ে আসতে থাকে | লুকের ক্যামেরা নৌকার প্রান্ত থেকে জলের মধ্যে ঝুলন্ত অবস্থায় ছিল | ৩‚০০০ পাউন্ড বা প্রায় ১‚৩০০ কিলোর এই দৈত্যাকার গ্রেট হোয়াইট শার্কের অসামান্য কিছু ছবি তুলতে যখন ব্যস্ত লুক তখনই হাঙরটি তাঁর চিকন সাদা ধারালো দাঁত বসিয়ে দেয় লুকের ক্যামেরার প্রান্তে | কোনও ভীতু মানুষ হলে হয়ত তখনই ভয়ে প্রাণ নিয়ে পালাতেন ওই জায়গা থেকে | কিন্তু লুক ছবি তোলা থামাননি | প্রাণ বিপন্ন করেও নিজের ছবি তোলার কাজ চালিয়ে যান তিনি | কারণ এত কাছ থেকে এমন প্রাণীর ছবি তোলার সুযোগ সবাই সবসময় পায় না |

ছবির দিকে তাকালেই বোঝা যাবে কেমন হিংস্রভাবে ক্যামেরাটিকে চিবিয়ে ফেলতে চাইছে হাঙরটি | তিনি জানান হাঙর একটি আশ্চর্য প্রাণী এবং তাদের সংরক্ষণ করার খুবই দরকার | নেপচুনের ২ টি দ্বীপ‚ যা উত্তর ও দক্ষিণ নেপচুন নামে পরিচিত সেখানেই গড়ে ১৬ ফুট লম্বা পুরুষ গ্রেট হোয়াইট শার্ক বাস করে | এরা ১৮ ফুট অবধি লম্বা হতে পারে |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.