আমাদের শরীরে ভিটামিন-ডি এর প্রয়োজনীয়তা

ভিটামিন-ডি আমাদের শরীরে হাড়ের স্বাস্থ্য বজায় রাখে। হাড় মজবুত রাখতে ক্যালসিয়ামের প্রয়োজন, শরীরে ক্যালসিয়াম প্রয়োজনীয়তা মেটাতে ভিটামিন-ডি প্রয়োজন। ভিটামিন ডি একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভিটামিন। ভিটামিন-ডি এর অভাবে প্রাপ্তবয়স্কদের অস্টিওম্যালেশিয়া হতে পারে। এটির ফলে হাড়ের গঠনে ডিফর্মেশন দেখা দেয়।

দুধ কম খাওয়া বা শরীরে রোদ না লাগানো, এয়ারকন্ডিশনড গাড়িতে যাতায়াত করা বা এসি ঘরে সারাদিন বসে থাকার ফলে শরীরে ভিটামিন ডি-এর অভাব হতে পারে । ভিটামিন-ডি অভাবের মূল লক্ষণ হল হাড় নরম হয়ে যাওয়া। আবার এটি যেহেতু ফ্যাট সলিউবল ভিটামিন, তাই ওবিসিটির ফলে ভিটামিন-ডির অভাব হতে পারে। সিরোসিস অব লিভার বা কিডনির কিছু অসুখে এ ভিটামিনের অভাব হতে পারে। এছাড়া এই ভিটামিনের অভাবে এই লক্ষণগুলিও দেখা যায়।

  • যেহেতু ভিটামিন ডি দাঁত, হাড় ও পেশীর জন্য প্রয়োজনীয়, তাই এর অভাবের ফলে হাড়, পেশী বা দাঁত দুর্বল হয়ে যেতে পারে।
  • দেহে অপর্যাপ্ত ভিটামিন ডি এর কারণে দীর্ঘস্থায়ী ব্যাথা থাকে শরীরে।
  • ভিটামিন ডি এর অভাবগ্রস্থ মানুষের মাঝে মধ্যেই মাড়ি ফুলে যাওয়া, লাল হয়ে থাকা এবং রক্তপাত দেখা যায়।
  • হাড়, পেশী ও দাঁত ছাড়াও হার্ট ও ভিটামিন ডি এর উপর নির্ভরশীল। তাই যদি রক্তচাপের মাত্রা বেড়ে যায় তাহলে তা ভিটামিন ডি-এর অভাবে হতে পারে।
  • দিনের বেলা কাজের শক্তি না পাওয়া বা ঘন ঘন একটানা ক্লান্তিবোধ দেখা গেলে বুঝতে হবে তার দেহে ভিটামিন ডি এর মাত্রা কম।
  • দেহের চর্বি কোষে সঞ্চিত ভিটামিন ডি হচ্ছে চর্বিতে দ্রবনীয় ভিটামিন। তাই বেশি ওজনের বা মোটা মানুষের বেশি ভিটামিন ডি এর প্রয়োজন হয়।
  • দেহে পর্যাপ্ত ভিটামিন ডি থাকলে উল্লেখযোগ্য হারে অ্যালার্জির মাত্রা কমে যায়। প্রায় ৬০০০ মানুষের উপর পরিচালিত একটি সমীক্ষায় দেখা যায় ভিটামিন ডি এর মাত্রা যাদের কম থাকে তারা বেশি অ্যালার্জিতে আক্রান্ত হন।

ভিটামিন ডি এর প্রধাণ উত্স হল সূর্য রশ্মি। সূর্যের আলো থেকে পর্যাপ্ত পরিমান ভিটামিন ডি পাওয়া সম্ভব। সূর্যের আলো থেকে দেহে ভিটামিন ডি তখনই তৈরি হয় যখন সানস্ক্রিন দেয়া না থাকে। তাই সূর্য রস্মি থেকে ভিটামিন ডি নিতে হলে কমপক্ষে ১০-১৫মিনিট রোদে থাকতে হবে।

ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাদ্য

ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার খুব কম। যদি শরীরে এই ভিটামিনের অভাবে সমস্যা হয় তবে এই ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবারগুলি বেশি পরিমানে খেতে হবে। স্যালমন, সার্ডিন , টুনা, ম্যাকরেল ইত্যাদি চর্বিযুক্ত মাছ, মাশরুম, কমলা লেবু, ডিম, দুধ ও বাঁধাকপি থেকে ভিটামিন ডি পাওয়া যায়।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Please share your feedback

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nayak 1

মুখোমুখি বসিবার

মুখোমুখি— এই শব্দটা শুনলেই একটাই ছবি মনে ঝিকিয়ে ওঠে বারবার। সারা জীবন চেয়েছি মুখোমুখি কখনও বসলে যেন সেই কাঙ্ক্ষিতকেই পাই