সিকিমের জঙ্গলে তুষারপাতের পাশাপাশি এ বার রয়্যাল বেঙ্গল রহস্য

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৯৫৮২ ফুট উঁচুতে পাহাড়ে দেখা মিলল রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের৷ জঙ্গলে ট্র্যাক ক্যামেরায় এই প্রথম ধরা পড়েছে তার ছবি। দু বছর আগে ২০১৭ সালের ২০ জানুয়ারি লাভার কাছে দেখা মিলেছিল তার । ছবি তুলেছিলেন আনমোল ছেত্রী নামে এক গাড়িচালক। তার পরেই নেওড়া উপত্যকায় ট্র্যাপ ক্যামেরা বসানো হয়। সেখানে সাত হাজার ফুটের বেশি উচ্চতায় ফের বাঘের দেখা । আর এ বারে লাভার পর সিকিমের পাংগোলাখা-র জঙ্গলে দেখা গেল রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার ৷

পাংগোলাখার জঙ্গলে ট্র্যাপ ক্যামেরায় ধরা পড়া বাঘের ছবি

সিকিম সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, গত ৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা ২৩ মিনিট থেকে টার মধ্যে জঙ্গলের ট্র্যাক ক্যামেরায় দু’বার ধরা পড়ে বাঘের ছবি। সমতল থেকে এত উঁচুতে রয়্যাল বেঙ্গল-এর ছবি ধরা পড়ায় সিকিমের পর্যটন দফতর থেকে বন ও পরিবেশ দফতর, সকলেই বেশ খুশি। সম্প্রতি এই অঞ্চলে তুষারপাতও হয়েছে।

কালিম্পং জেলায় নেওড়া উপত্যকায় এবং পাংগোলাখায় দেখতে পাওয়া রয়্যাল বেঙ্গল একই বাঘ কি না, তা নিয়ে তাই উঠেছে প্রশ্ন। তবে গত ছ’মাসে নেওড়ায় ট্র্যাপ ক্যামেরায় কোনও বাঘের ছবি ধরা পড়েনি। এই উচ্চতায় বাঘ আসার কারণ হিসেবে সিকিমের বন দফতরের কর্মীদের বক্তব্য, পাংগোলাখায় বাঘের প্রিয় খাদ্য চমরি গাই প্রচুর পরিমাণে রয়েছে। এটা একটা প্রধান কারণ হতে পারে। তবে লাভা এবং পাংগোলাখা-তে দেখা যাওয়া বাঘটি এক কিনা তা নিশ্চিত করার জন্য দুই বাঘের ছবিগুলি বিশেষজ্ঞদের দিয়ে মেলাতে হবে বলে জানান নেওড়া ভ্যালির দায়িত্বপ্রাপ্ত ডিএফও নিশা গোস্বামী।

সিকিম সরকারের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, লাভায় বাঘ দেখার পরেই জাপানি সংস্থার সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে পাংগোলাখার জঙ্গলে ট্র্যাক ক্যামেরা বসানো হয়। রোশন তামাং এই ক্যামেরা বসানোর দায়িত্ব নেন। তিনি হলেন উত্তর পাংগোলাখা রেঞ্জের রেঞ্জার। সিকিমের বন ও পরিবেশ দফতরের মন্ত্রী শেরিং ওয়াংদি লেপচা জানিয়েছেন, পাংগোলাখার জঙ্গলে ট্র্যাক ক্যামেরা বসানোতেই হদিশ পাওয়া গিয়েছে এই রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here