শীতকালে চুল ফ্রিজি হয়ে যাচ্ছে? এই সাধারণ ভুলগুলো এড়িয়ে চলুন |

শীতকালে চুল ফ্রিজি হয়ে যাচ্ছে? এই সাধারণ ভুলগুলো এড়িয়ে চলুন |

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

বছরের অন্য সময়ের তুলনায় শীতকালে চুলের অনেক বেশী যত্ন নিতে হয় | এই সময় বাতাস থেকে আদ্রতা কমে যায় | ফলে চুল ফ্রিজি‚ রুক্ষ প্রাণহীন দেখায় | এছাড়াও আরো কিছু কারণ আছে যার জন্য চুল ফ্রিজি হয়ে যেতে পারে ‚ সেগুলো হলো জোরে চুল আঁচড়ানো‚ ভেজা চুলে চুল আঁচড়ানো‚ সঠিক চিরুনি ব্যবহার না করা‚ অতিরিক্ত শ্যাম্পু করা‚ ঘন ঘন শ্যম্পু করা‚ ডায়েট এবং লাইফস্টাইল | এছাড়াও জেনেটিক কারণের জন্যেও চুল ফ্রিজি হতে পারে | ফ্রিজি চুল শুধু যে বাজে দেখায় তাই শুধু নয় একই সঙ্গে সহজেই ভেঙেও যায় | ফ্রিজি চুলে আদ্রতা পৌঁছাতে পারে না | ফলে চুলের ডগা ভেঙে যাওয়া বা split ends-এর সমস্যা দেখা দেয় | আজকে রইলো কয়েকটা সাধারণ ভুল যা অ্যাভয়েড করলে চুল ফ্রিজ ফ্রি হবে |

) গরম জলে চুল ধোবেন না : যত ঠান্ডাই পড়ুক না কেন মাথায় গরম জল না দেওয়াই ভালো | সব থেকে ভালো হয় ঠান্ডা জলে মাথা ধোয়া | তা যদি না পারেন তাহলে একদম হাল্কা গরম জল ব্যবহার করুন | গরম জলে মাথা ধুলে চুলের আদ্রতাও ধুয়ে যায় | ফলে চুল আরো ড্রাই আর ফ্রিজি হয়ে যায় | অন্যদিকে ঠান্ডা জলে চুল ধুলে ময়শ্চার লক হয়ে যায় এবং আপনার চুল অনেক বেশী রেশমী কোমল দেখাবে |

) ব্লো ড্রায়ার বুঝেশুনে ব্যাবহার করুন : তাড়াতাড়ি চুল শুকোনোর জন্য আমরা ব্লো ড্রায়ার ব্যবহার করে থাকি | কিন্তু গরম হাওয়া চুলের খুবই ক্ষতি করে | একই সঙ্গে খুব কাছ থেকে হাওয়া লাগার ফলেও  ক্ষতি হয় | সব থেকে ভালো হয় এমনি যদি চুল শুকোতে পারেন |

) ভিজে চুল তোয়ালে দিয়ে ঘষে ঘষে মুছবেন না : ভিজে চুল ঘষে ঘষে না মুছে আলতো করে চুলে তোয়ালে জড়িয়ে রাখুন | ৫-১০ মিনিট এইভাবে রাখার পর গায়ের জোরে চুল না মুছে‚ হাল্কা হাতে চুল মোছার চেষ্টা করুন |

) শ্যাম্পু করার পর অবশ্যই কন্ডিশনর ও হেয়ার সিরাম ব্যবহার করুন :কন্ডিশনর আর হেয়ার সিরাম চুলের আদ্রতা লক করে দেয় | তবে ভালো প্রডাক্ট ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন | সব থেকে ভালো হয় আমন্ড আর আরগন তেল যুক্ত কন্ডিশনর আর সিরাম ব্যাবহার করার চেষ্টা করুন |

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

pandit ravishankar

বিশ্বজন মোহিছে

রবিশঙ্কর আজীবন ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের প্রতি থেকেছেন শ্রদ্ধাশীল। আর বারে বারে পাশ্চাত্যের উপযোগী করে তাকে পরিবেশন করেছেন। আবার জাপানি সঙ্গীতের সঙ্গে তাকে মিলিয়েও, দুই দেশের বাদ্যযন্ত্রের সম্মিলিত ব্যবহার করে নিরীক্ষা করেছেন। সারাক্ষণ, সব শুচিবায়ু ভেঙে, তিনি মেলানোর, মেশানোর, চেষ্টার, কৌতূহলের রাজ্যের বাসিন্দা হতে চেয়েছেন। এই প্রাণশক্তি আর প্রতিভার মিশ্রণেই, তিনি বিদেশের কাছে ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের মুখ। আর ভারতের কাছে, পাশ্চাত্যের জৌলুসযুক্ত তারকা।

Pradip autism centre sports

বোধ