হাতে লেখা চিঠি পাঠিয়ে ভাই ও তাঁর নবপরিণীতা স্ত্রীকে অভিনন্দন জানালেন সুস্মিতা সেন

সাতপাকে বাঁধা পড়লেন সুস্মিতা সেনের ভাই রাজীব সেন | ৯ জুন রেজিস্ট্রি করে বিয়ে হল রাজীব ও তাঁর দীর্ঘদিনের প্রেমিকা চারু অশোপার | বিয়ের ছবি রাজীব সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করেন | বিয়ের দিন উনি পরেছিলেন হালকা কুর্তা পাজামা | চারুর পরনে ছিল সোনালি জরির মোটিফ দেওয়া লাল শাড়ি |

ভাইয়ের বিয়েতে কিন্তু সুস্মিতা উপস্থিত ছিলেন না | তবে চারুর করা একটা সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট থেকে জানা যাচ্ছে আর ক’দিন পর গোয়াতে আনুষ্ঠিকভাবে বিয়ে হবে ওঁদের | আর বিয়ের তোড়জোড়ে ব্যাস্ত আছেন সুস্মিতা | ওঁদের বিয়ের পোশাকও সুস্মিতা নিজে পছন্দ করেছেন | সুস্মিতা হাতে লেখা একটা চিঠি পাঠিয়ে অভিনন্দন জানিয়েছেন নবদম্পতিকে  | সেই চিটি চারু শেয়ার করেন ওঁর ইনস্টাগ্রাম পোস্টে |

চারু আর রাজীবের ১৬ জুন বাঙালি ও পাঞ্জাবী প্রথা মেনে বিয়ে হবে | এই ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে চারু বলেন ‘বিয়েতে খুব বেশি লোকজনকে ডাকা হবে না | দুই পরিবারের থেকে পঁচিশ-তিরিশ জন উপস্থিত থাকবে | আমাদেই দুই পরিবার মিলে ডিসেম্বরের একটা ডেট ঠিক করেছিল | কিন্তু সেটা বহুদিন দেরী ছিল‚ বলে আমরা ১৬ জুন ঠিক করলাম | আমাদের আত্মীয়স্বজন এতে সবাই বেশ আশ্চর্য হয়ে যায় | পরে মুম্বইতে আমরা সবার জন্য একটা রিশেপশনের ব্যবস্থা করব |’

সুস্মিতার সঙ্গে চারুর সম্পর্ক কেমন এই প্রশ্নের উত্তরে চারু বলেন ‘বিশ্বাস করবেন না ছোটবেলায় একবার ফ্যান্সী ড্রেস কম্পিটিশনে আমি সুস্মিতা সেনের মিস ইউনিভার্স হওয়ার মুহূর্তটা যেমন ছিল সেটা সেজে গেছিলাম | সেই ছবি আমি সুস্মিতাকে দেখিয়েছি | একবার ভাবুন আমি কি লাকি! আর ক’দিনের মধ্যে সুস্মিতা আমার ননদ হতে চলেছেন | সুস্মিতা আমাকে আর রাজীবকে বলেছেন ঝগড়া হলে তাড়াতাড়ি তা মিটিয়ে নিতে | যে কোন দম্পতির মত আমার আর রাজীবের ঝগড়া হয়‚ কিন্তু আমরা তা খুব তাড়াতাড়ি মিটিয়ে নিই | আমরা একে অপরকে শ্রদ্ধা করি এবং একই সঙ্গে আমরা একে অপরের ভাল বন্ধু | সুস্মিতা আমাকে বলেছিলেন ‘ যখন কোনো ছেলের সঙ্গে তুমি সহজেই মিশতে পারবে তখন বুঝবে সে তোমার জীবনসঙ্গী হওয়ার জন্য উপযুক্ত |’ রাজীব আমার জন্য সঠিক জীবনসঙ্গী |’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here