আজকের  দিনে কলাপাতায় খাওয়ার প্রথা উঠেই গিয়েছে। কিন্তু একটা সময় ছিল যখন কলাপাতায় খাওয়ার চল ছিল।  আজকাল পিকনিকেও সোলার থালায় খাওয়া হয়। একটা সময় কলাপাতা আমাদের দৈনন্দিন জীবনযাত্রার একটা অঙ্গ ছিল। দু’ দশক আগেও বেশির ভাগ বিয়ে বাড়িতে কলাপাতায় খাবার পরিবেশন করা হতো। তবে দক্ষিণ ভারতে এখনও কলাপাতায় খাওয়ার চল রয়েছে। জানেন কি কলাপাতায় খাবার খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে কতটা উপকারী?

কলাপাতা খুব সহজেই মাটির সঙ্গে মিশে যায় তাই পরিবেশ দূষণেরও কোনও আশঙ্কা থাকে না।

শ্বাসকষ্ট, সর্দি-কাশিতে কলাপাতার রসে খুব উপকার মেলে। চর্মরোগ, আমাশা, কোষ্ঠকাঠিন্য, রক্তাল্পতায় কলাপাতার রস অত্যন্ত কার্যকরী। তাছাড়া, লিভারের সমস্যায় কলাপাতার রস খুব উপকারী।

Banglalive-6

কলাপাতায় পলিফেনল নামের একটি অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান থাকে। যা গ্রিন টি-তেও পাওয়া যায়। খাবারের সঙ্গে এই পলিফেনল মিশে শরীরে প্রবেশ করে। এই পলিফেনল যুক্ত খাবার খেলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

Banglalive-8

কলাপাতায় এক ধরনের ভেসজ মোমের প্রলেপ থাকে। গরম খাবার কলাপাতায় পরিবেশন করা হয় তখন মোমের প্রলেপ গলে গরম খাবারের সঙ্গে মিশে যায়। ফলে তা খাবারে অন্যরকম স্বাদ এনে দেয়।

Banglalive-9

স্টিলের বা কাচের প্লেট খুব ভাল করে ধুলেও সাবানের রাসায়নিক প্লেটে লেগে থাকতে পারে। কিন্তু কলাপাতায় ক্ষেত্রে খাবার থাকে রাসায়নিকমুক্ত।

আরও পড়ুন:  হলুদ না কমলা, কোন ডিমের কুসুম বেশি পুষ্টিকর?

NO COMMENTS