রহস্যময় এই দ্বীপটি যেন অন্য গ্রহ থেকে পৃথিবীতে থাকতে এসেছে

4144

আফ্রিকা মহাদেশের মূল ভূখণ্ডেরই অংশ সকোত্রা। প্রায় সত্তর লক্ষ বছর আগে দ্বীপটি মূল ভূখণ্ড থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এর গাছগাছালি আর প্রাণীও পৃথিবীর অন্য সব জায়গার চেয়ে আলাদা। দ্বীপটির অবস্থান ভারত মহাসাগরে। সোমালিয়া থেকে দূরত্ব আড়াই কিলোমিটার, আর ইয়েমেন থেকে প্রায় সাড়ে তিনশো কিলোমিটার। তবে দ্বীপটি আছে ইয়েমেনের অধিকারেই।


সকোত্রার অধিবাসীদের নিয়ে অনেকেরই ধারণা ছিল, এই সকোত্রার বাসিন্দারা জাদুটোনা জানেন। এমনকি সাগরের ঝড়-জল নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন তাঁরা। বর্তমানে আবার ইয়েমেনের ছেলেরা কোমরে ছুরি-আগ্নেয়াস্ত্র নিয়েই কাটায়, সেই তুলনায় সকোত্রার বাসিন্দারা অনেকটাই শান্তপ্রিয়। সকোত্রার বর্তমানে ছশোটি গ্রামে প্রায় চল্লিশ হাজার মানুষ বসবাস করে। মূলত পর্যটকদের জন্য কয়েক বছর আগে একমাত্র একটি পাকা রাস্তাটি বানানো হয়েছে।


সকোত্রার আবহাওয়া বেশ রুক্ষ, শুষ্ক আর গরম, গড় তাপমাত্রা পঁচিশ ডিগ্রি। বালুময় সৈকত, পাথুরে সমভূমি, আর উঁচু উঁচু পাহাড়-এসব নিয়েই দ্বীপটি গঠিত। গত কয়েক দশকে এখানকার প্রকৃতি নিয়ে প্রচুর গবেষণা হয়েছে। গবেষকদের মতে, এই দ্বীপে এমন অনেক গাছপালা-পশুপাখি পাওয়া গেছে, যা পৃথিবীর আর কোথাও পাওয়া যায় নি। এমনকি এই দ্বীপের আবহাওয়া যেন ঠিক পৃথিবীর মত নয়। এসব গবেষণার ফলে এই দ্বীপটি ইউনেস্কোর
ওয়ার্ল্ড ন্যাচারাল হেরিটেজ সাইটের স্বীকৃতিও পেয়েছে।


এই দ্বীপে আটশো পঁচিশ প্রজাতির গাছপালা-পশুপাখির মধ্যে তিনশো সাতটি প্রজাতি কেবল এই দ্বীপেই পাওয়া যায়। এর মধ্যে কোনও কোনও প্রজাতি আবার টিকে রয়েছে প্রায় দুই কোটি বছর ধরে। সকোত্রার সবচেয়ে বিখ্যাত গাছটির নাম ড্রাগনস ব্লাড। গাছটি এমনকি ইয়েমেনের কয়েনেও খোদিত আছে। দেখতে ঠিক যেন উল্টে যাওয়া ছাতা। শাখা-প্রশাখা সব আকাশের দিকে বাড়ানো। এই গাছ থেকে বের হওয়া ঘন লাল আঠার কারণেই এর এই অদ্ভুত নামকরণ। সকোত্রাতে একধরনের শসাগাছও হয়। এই গাছও ভীষণ অদ্ভুতুড়ে। ফুলে থাকা কাণ্ডটি মানুষের চেয়েও উঁচু।

Dragon tree (Dracaena cinnabari) in Socotra island, Yemen. (alex7370)


আশ্চর্যজনকভাবে দ্বীপটিতে কোনো উভচর প্রাণী নেই। স্তন্যপায়ীও প্রায় নেই বললেই চলে। মানুষ বাদ দিলে, দ্বীপটির একমাত্র স্তন্যপায়ী বাঁদুড়। তবে প্রচুর সরীসৃপ আছে। সরীসৃপগুলোর নব্বই শতাংশই এই দ্বীপের বাইরে কোথাও পাওয়া যায় না।

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.