পর্নোগ্রাফি চর্চার জন্য স্থাপিত বিশ্ববিদ্যালয়

যৌনতা বা পর্নোগ্রাফি নিয়ে ছুঁৎমার্গ কিছু কম নয়। আজও একে ট্যাবু হিসেবেই দেখা হয়। কিন্তু পর্নোগ্রাফি সম্পর্কে মানুষের কৌতুহল মেটাতে এবং মানুষকে পর্নোগ্রাফি বিষয়ে শিক্ষিত করে তুলতে বিশ্বে প্রথম ইতালিতে চালু হয়েছে পর্নোগ্রাফি বিষয়ক বিশ্ববিদ্যালয়।

পর্নোগ্রাফি নিয়ে চর্চার জন্য যে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপিত হতে পারে, তা হয়তো ভাবেননি কেউই। কিন্তু যিনি ভেবেছেন, তিনি নিজেও একজন পর্নোগ্রাফি তারকা। ‘ইতালিয়ান স্ট্যালিয়ন’ খ্যাত জনপ্রিয় পর্নোগ্রাফি তারকা তথা পরিচালক রোকো সিফ্রেদির উদ্যোগেই চালু হয়েছে পর্নোগ্রাফি বিশ্ববিদ্যালয় ‘সিফ্রেদি’স হার্ড অ্যাকাডেমি, ইউনিভার্সিটা ডেল পর্নো’। মানুষের মধ্যে পর্নোগ্রাফি সম্পর্কে যে সুপ্ত কৌতূহল রয়েছে তা মেটাতে এবং যৌনতা সম্পর্কে যে ট্যাবু রয়েছে তা সমাজের বুক থেকে মুছে দিয়ে মানুষকে যৌনতা সম্পর্কে প্রকৃত অর্থে শিক্ষিত করে তোলাই এই বিশ্ববিদ্যালয়ের লক্ষ্য। বিশ্ববিদ্যালয়ে পর্নোগ্রাফিবিষয়ক কোর্সগুলির সময়সীমা মাত্র আড়াই সপ্তাহের। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ব্যাচে প্রায় হাজারেরও বেশি আবেদনকারীর মধ্যে থেকে মাত্র একুশ জনকে নির্বাচন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ইতালির স্কুলগুলিতে এখনও পর্যন্ত যৌনশিক্ষা পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত নয়। ইতালির স্কুলগুলিতে যৌনশিক্ষা বাধ্যতামূলক করার দাবিতে অনলাইনে একটি গণস্বাক্ষর কর্মসূচীর আয়োজন করেছেন সিফ্রেদি। সিফ্রেদি একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক স্তরে আবেদন জানিয়েছেন, ইতালির স্কুলগুলিতে অবিলম্বে যাতে যৌনশিক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়। সিফ্রেদির এই আবেদনকে সমর্থন জানিয়েছেন সেদেশের হাজার হাজার মানুষ। তিনি আরও জানান, পর্নোগ্রাফি বিনোদনের মাধ্যম হলেও এর বেশকিছু শিক্ষণীয় দিক রয়েছে। আর এই শিক্ষণীয় দিকগুলি সম্পর্কে মানুষকে অবগত করাই তাঁর লক্ষ্য। আর এই বিষয়ে শিক্ষাদানের জন্য তিনি সর্বদাই প্রস্তুত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here