মানুষের ক্ষেত্রে স্বেচ্ছামৃত্যু | কিন্তু পশুদের ক্ষেত্রে হলে তাকে কী বলা হবে ? তাদের ইচ্ছে-অনিচ্ছের হদিশ বা পরোয়া আর কবে করেছে মানুষ ! মানুষের উচিত কর্তব্য বলে মনে হয়েছে‚ চিরতরে ঘুম পাড়িয়ে দেওয়া হল বিশ্বে হোয়াইট নর্দার্ন প্রজাতির শেষ জীবিত পুরুষ গণ্ডারটিকে | কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে ওল পেজেতা বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ কেন্দ্রে | কয়েক বছর ধরে ওটাই ছিল তার ঠিকানা | 

Banglalive

৪৫ বছর বয়সী গণ্ডারটির নাম ছিল সুদান | ওল পেজেতা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে বয়সের ভারে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিল সে | কমজোরি হয়ে পড়েছিল মাংসপেশি ও হাড় |  দু সপ্তাহ ধরে বেরোতে পারেনি নিজের গুহা ছেড়ে | ডান দিকের পিছনের পায়ে আঘাত ক্রমেই চলৎশক্তিহীন করে দিচ্ছিল তাকে | তাই ইঞ্জেকশনে মুক্তি দেওয়া হল পঙ্গুত্বের যন্ত্রণাময় জীবন থেকে |

নাইরোবিতে আসার আগে সুদান থাকত চেক প্রজাতন্ত্রের ভার ক্রালোভ জু-য়ে | সেখান থেকে তাকে আনা হয় ওল পেজেতা বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ কেন্দ্রে | সঙ্গিনী ছিল একই প্রজাতির দুটি স্ত্রী গণ্ডার | তাদের নাম নাজিন ও ফাতু | হোয়াইট নর্দার্ন প্রজতির এই দুটি গণ্ডারই রয়ে গেল | কিন্তু দুটিই স্ত্রী গণ্ডার | ফলে এই প্রজাতির প্রাণী কার্যত অবলুপ্ত হল পৃথিবী থেকে |

আরও পড়ুন:  জেলে খাবার খাননি কিন্তু এই প্রিয় কাজটা করতে ছাড়েননি সলমন

NO COMMENTS