কালচে ও ফ্যাকাসে ঠোঁটের হাত থেকে বাঁচতে রইল কয়েকটি ঘরোয়া উপায়

16260

সুন্দর ঠোঁট আপনার চেহারাকে আকর্ষণীয় করে তোলে এবং আপনার ব্যক্তিত্যকে ফুটিয়ে তোলে। ঠোঁটের ত্বক খুবই নরম হয়। ঠাণ্ডা-গরম, সূর্যরশ্মি, দূষণ সবই ঠোঁটের জন্য ক্ষতিকর। প্রত্যেকেই নিজের ঠোঁটকে আরও আকর্ষণীয় এবং পোষাকের সাথে মানানসই করতে ব্যবহার করেন নানা প্রসাধনী। কিন্তু বর্তমান প্রতিকূল পরিবেশ এবং বিভিন্ন প্রসাধনীর রাসায়নিক প্রভাবে এই শুভ্র গোলাপী ঠোঁট তার সৌন্দর্য হারিয়ে কালচে হয়ে যায়। জেনে নিন কিভাবে ঠোঁটের হারানো জেল্লা ফিয়ে আনা যায়।

* মধুর সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে ঠোঁটে লাগান। এই মিশ্রণ প্রাকৃতিকভাবে ব্লিচের কাজ করে। ফলে ঠোঁটের কালচে দাগ মুছতে এটি বিশেষভাবে সাহায্য করে।

* মধু এবং চিনির মিশ্রণও ঠোঁটের কালচে দাগ তুলতে বিশেষভাবে সাহায্য করে। মধু এবং চিনির স্ক্রাব তৈরি করে আলতো করে ঠোঁটের উপর লাগালে ম্যাজিকের মতো ফল পাওয়া যাবে।

* আলুর রসও মুছে ফেলতে পারে ঠোঁটের কালচে দাগ। আলুর রসে এমন কিছু এনজাইম রয়েছে যা, ঠোঁটের এই কালচে দাগের উপর নিমেষে কাজ করে।

* গাজর এবং বিটের রসও এই সমস্যায় দ্রুত কাজ করে। গাজরে আছে বিটা ক্যারাটিন, অ্যান্টি অক্সিডেন্ট,ভিটামিন যা ত্বকের রুক্ষতা দূর করে থাকে। ত্বককে করে তোলে আরও স্বাস্থ্যকর, আরও সুন্দর। বিট হচ্ছে প্রাকৃতিক রঙ, যা ঠোঁটকে গোলাপি রং হতে সাহায্য করে। এছাড়া এতে রয়েছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা ঠোঁটকে কোমল করে তোলে।

* অলিভ বা জলপাইও ঠোঁটের কালচে ভাবকে দূর করতে সাহায্য করে ঠোঁটকে ময়েশ্চারাইজড করে তোলে, এর রুক্ষতা দূর করে থাকে।নিয়মিত এক সপ্তাহ ব্যবহারে আপনার ঠোঁট আগের চাইতে অনেকটা নরম ও গোলাপি হয়ে উঠবে।

* ভাল মানের লিপ বাম ব্যবহার করুন।

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.