খুশকি তাড়াতে নিয়ম করে খান এই খাবারগুলি

খুশকির সমস্যায় জেরবার মানুষের সংখ্যা নেহাত কম নয়। অনেক শ্যাম্পু, কন্ডিশনার ব্যবহার করেও কোনও লাভ হয়নি? তবে আজই পরখ করে দেখতে পারেন এমন কয়েকটি খাবার, যা আপনাকে খুশকির সমস্যা থেকে মুক্তি দেবে।

* ছোলা– ছোলায় রয়েছে ভিটামিন বি-৬ ও জিংক নামক দুটি পুষ্টি উপাদান, যা খুশকির বিরুদ্ধে প্রতিরক্ষা তৈরি করে। তাই খুশকি তাড়াতে ভেজানো ছোলার গুণ অনেক। তবে যদি ছোলা খেতে না পছন্দ করেন, তাহলে ছোলা বেটে নিয়ে তার সঙ্গে জল ও টক দই মিশিয়ে স্কাল্পে লাগালে উপকার পাওয়া যাবে।

* আদা– ফাঙ্গাস ও বদহজম দুটোই খুশকির কারণ। অ্যান্টি-ফাঙ্গাল ও অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল গুণাগুণযুক্ত আদা সহজেই খাবার হজম করতেও সাহায্য করে | খাবার সময় দু’এক টুকরো আদা খান। আদা চা খেলেও উপকার পাবেন। আর আদার রস চুলে ব্যবহারের রীতি তো চলে এসেছে সেই প্রাচীনকাল থেকেই।

* রসুন– প্রাচীনকাল থেকেই রসুন বিভিন্ন শারিরীক সমস্যার ভেষজ সমাধান হিসেবে পরিচিত। উচ্চমানের এলিসিন থাকায় রসুন খুশকি দূর করতে সাহায্য করে। এতে রয়েছে প্রাকৃতিক অ্যান্টি-ফাঙ্গাল উপাদান। নিয়মিত রসুন খেলে খুশকির সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

* আপেল– বিশেষজ্ঞরা বলেন, প্রতিদিন একটি আপেল খেলে যেকোনও রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তবে শারীরিক সমস্যার পাশাপাশি আপেল খেলে খুশকির সমস্যা থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়। ইচ্ছেমতো শুধু শুধু খেতে পারেন আবার ওটমিল ও ফ্রুট সালাদেও যোগ করতে পারেন। তবে খাওয়ার পাশাপাশি এক টুকরো আপেল স্কাল্পে ঘষে নিলেও ভাল ফল পাবেন।

* কলা– খুশকি তাড়ানোর সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে কলা। কলা সারা বছরই পাওয়া যায়। রোজ খাদ্যতালিকায় কলা রেখে শরীরে ভিটামিন বি-৬, এ, সি, ই-এর চাহিদা পূরণ করতে সাহায্য করে। জিংক ও পটাশিয়ামের উত্স এই ফলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। খাওয়ার পাশাপাশি চুল পরিষ্কার রাখতে কলার পেস্ট লাগিয়ে ২০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে নিতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here