চেহারার সৌন্দর্য্য ফুটিয়ে তুলতে পারে সুন্দর একজোড়া ভ্রু। অনেকের ভ্রু প্রয়োজনের তুলনায় বেশি মোটা হয় বলে অনেকে ভ্রু প্লাক করেন আবার সরু ভ্রু কৃত্রিমভাবে আঁকেন অনেকে। সবই আদতে নিজেকে সুন্দর রাখার একটা প্রচেষ্টা মাত্র। অনেকের চেহারা সুন্দর হওয়া সত্ত্বেও ভ্রু পাতলা হওয়ার কারণে সৌন্দর্য ফোটে না। তবে কয়েকটি প্রাকৃতিক উপায় অবলম্বন করলে খুব অল্প সময়ের মধ্যে ঘন ভ্রু পাওয়া সম্ভব।

* কালো ঘন ভ্রু পেতে চাইলে ব্যবহার করুন ক্যাস্টর অয়েল। একটি কটন বাডে ক্যাস্টর অয়েল নিয়ে ভ্রুর লাইন বরাবর এঁকে নিন। আধ ঘণ্টা রেখে ঈষৎ উষ্ণ গরম জলে মুছে ফেলুন। প্রোটিন, ফ্যাটি অ্যাসিড, অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আর ভিটামিনের গুণে ভরপুর ক্যাস্টর অয়েল ভ্রু’র চুলের গোড়ায় পুষ্টি সঞ্চারে সাহায্য করে।

* শুকনো, পরিষ্কার ভুরুর উপরে লাগাতে পারেন পেট্রোলিয়াম জেলী। সারা রাত রেখে পরের দিন সকালে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত এটি মেনে চললে ভ্রুর ঘনত্ব বাড়বে।

* অ্যালোভেরা ভ্রু দ্রুত বৃদ্ধির সহায়ক। একটা পাতা মাঝামাঝি কেটে ভিতরে শাঁসটি বের করে নিয়ে তা হালকা হাতে ভ্রুতে ম্যাসাজ করে ত্বকের সঙ্গে মিশিয়ে দিন। এক ঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন।

Banglalive-8

* রাতে ঘুমানোর আগে সামান্য নারকেল তেল গরম করে ভ্রুর উপরে ৫ মিনিট বৃত্তাকারে মাসাজ করুন। সারারাত রেখে সকালে উঠে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে সপ্তাহে ৩-৪ দিন করলে ভ্রু ধীরে ধীরে ঘন হতে শুরু করবে।

Banglalive-9

* মেথির বীজ সারারাত জলে ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন ওই ভেজানো মেথি মিহি করে বেটে নিয়ে একটা পেস্ট তৈরি করে নিতে হবে। তারপর ওই পেস্ট ভ্রুর উপরে লাগিয়ে নিতে হবে। আধ ঘণ্টা রেখে ঠান্ডা জলে ধুয়ে নিতে হবে।

* কাঠ বাদামের তেলে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন এ ও সি থাকে। এই তেল আঙ্গুলের ডগায় নিয়ে ভ্রুতে ম্যাসাজ করুন। সারা রাত রেখে সকালে ধুয়ে ফেলুন।

আরও পড়ুন:  নার্ভাস ব্রেকডাউন হলে নিজেকে সামলাবেন কী করে?

* অলিভ অয়েল বা জলপাই-এর তেলও ওই একই পদ্ধতিতে কটন বলের সাহায্যে ভ্রুর ওপর লাগিয়ে নিন। সপ্তাহে ৩/৪ দিন ব্যবহার করলেও উপকার পাবেন।

NO COMMENTS