এই বসন্তের সময়ে ত্বকের বাড়তি যত্ন নিন

এই বসন্তের সময়ে ত্বকের বাড়তি যত্ন নিন

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

শীত যেন শেষ হয়েও যেতে চাইছে না, আর তার মাঝে মাঝে বসন্ত দিচ্ছে মাতাল হওয়ার পরশ। আবার রোদটাও বেশ তেজী। সব মিলে প্রকৃতি যেন মেতে উঠেছে হার জিতের খেলায়। এই না শীত না গরম আবহাওয়ার পরিবর্তনের সময়ে আমাদের ত্বকে দেখা দেয় বিভিন্ন ধরণের সমস্যা। রুক্ষ খসখসে ত্বক, ঘন ঘন চামড়া ওঠা আর পিগমেন্টেশন এই সময়ের ‘কমন’ সমস্যা। তাই এই ঋতুতে শরীরের চাই বিশেষ যত্ন। তাই এ সময় যতটা সম্ভব থাকতে হবে সচেতন।

প্যাম্পার রুটিন

সপ্তাহে দু’দিন রাতে শুতে যাওয়ার আগে স্লিপিং প্যাক লাগিয়ে ঘুমোবেন। প্যাকে বেশি করে গোলাপ জল ব্যবহার করবেন। সপ্তাহে একদিন অন্তত ডিপ ক্লিনজিং করতে হবে। সকালে ময়েশ্চারাইজারের আগে কোনও একটা ভাল ব্র্যান্ডের স্কিন সেরাম লাগান। আর রাতে নাইট ক্রিম লাগানোর আগে কোনও ফেশিয়াল অয়েল লাগাতে পারেন। এগুলো নিয়মিত লাগালে ত্বকের পার্থক্য নিজেই বুঝতে পারবেন।

হাইড্রেটিং ক্লিনজার

এই সময়ে ত্বকের শুষ্কতা বেড়ে যায়। ত্বকের আর্দ্রতা ফেরাতে এমন ক্লিনজার ব্যবহার করুন, যেটা হাইড্রেটিং। সোপ-ফ্রি ফোম ক্লিনজার ব্যবহার করতে পারেন। মেকআপ তোলার সময়ও সাধারণ ওয়াইপ ব্যবহার না করে মেকআপ রিমুভাল অয়েল বা নারকেল তেল ব্যবহার করুন। এতে ত্বক অনেক বেশি আর্দ্র থাকবে।

এসপিএফ যুক্ত প্রডাক্টের ব্যবহার

এই সময় পর্যাপ্ত পরিমাণে সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। বাইরে যাওয়ার অন্তত ১৫ মিনিট আগে সানস্ক্রিন লাগান। শুধু মুখেই নয়, হাত, পা, গলায়, পোশাকের বাইরে খোলা অংশে সানস্ক্রিন লাগান। বাজারে নানা কোম্পানির সানস্ক্রিন স্প্রে পাওয়া যায়। সেগুলো সঙ্গে রাখুন। সারাদিন বাইরে থাকলে দুঘণ্টা অন্তর লাগাবেন। সাধারণ সানস্ক্রিন ছাড়াও যে মেকআপ বা বিউটি প্রডাক্টগুলোয় এসপিএফ থাকে, সেগুলো ব্যবহার করার চেষ্টা করুন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

Handpulled_Rikshaw_of_Kolkata

আমি যে রিসকাওয়ালা

ব্যস্তসমস্ত রাস্তার মধ্যে দিয়ে কাটিয়ে কাটিয়ে হেলেদুলে যেতে আমার ভালই লাগে। ছাপড়া আর মুঙ্গের জেলার বহু ভূমিহীন কৃষকের রিকশায় আমার ছোটবেলা কেটেছে। যে ছোট বেলায় আনন্দ মিশে আছে, যে ছোট-বড় বেলায় ওদের কষ্ট মিশে আছে, যে বড় বেলায় ওদের অনুপস্থিতির যন্ত্রণা মিশে আছে। থাকবেও চির দিন।