চুল থেকে পায়ের নখ…চা-এ সব তাজা

4663

সকালে চোখ মেললেই এক কাপ ধোঁয়া ওঠা চা| গন্ধে মন ফুরফুরে| এক সিপেই আলস্য সরে শরীর চনমনে| আর চা-খোরদের তো কথায় নেই| সীতা ছাড়া রাম যেমন ‘মণি হারা ফণী’ তেমনই তাঁদের উঠতে, বসতে, আড্ডায়, মনখারাপে শুধু চা চাই| চা কি শুধুই নেশার সামগ্রী? বিজ্ঞান বলছে নির্দিষ্ট মাপে রোজ ব্ল্যাক, গ্রিন, হোয়াইট আর ওলং চা যাঁরা নিয়মিত খান তাঁরা অন্যদের তুলনায় অনেক তাজা থাকেন| কারণ, এতে প্রচুর পরিমাণে phytochemicals আর anti-oxidant আছে| যা তনদুরুস্ত থাকতে সাহায্য করে| কীভাবে? জেনে নিন সেটাই—

১. গ্রিন টি খেয়ে শরীরচর্চা করলে এনার্জি লেভেল বেড়ে যায়| এর মধ্যে থাকা anti-oxidant শরীরের কোষ উজ্জীবিত করে| এতে কোষে কোষে অক্সিজেন চলাচল বাড়ে| পেশি সুগঠিত হয়|

২. নিয়মিত চা পানে হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা তুলনায় কমে যায়| এছাড়া, যাবতীয় হৃদরোগ এবং বয়সজনিত অসুস্থতা অনেকটাই ঠেকাতে পারে এক কাপ চা|

৩. ক্যানসার থেকে দূরে থাকতে চান? তাহলে অবশ্যই দিনে দু’কাপ চা পান করুন| তাহলেই আপনার ধারেপাশে কোলন, ব্রেস্ট, ওরাল, লাংস, প্রস্টেট, ওভারিয়ান, স্কিন, স্টমাক, লিভার—সহ কোনো ক্যানসার হওয়ার ঝুঁকি থাকবে না|

৪. গরমে শরীর ও ত্বকের আদ্রতা ধরে রাখতে চান? চায়ের থেকে ভালো অপশন আর কিছু নেই|

৫. এর মধ্যে থাকা phytochemicals মস্তিস্কের কোষ নষ্ট হতে দেয় না| তাই নিয়মিত চা পান করলে পারকিনসন বা অ্যালঝাইমার্স রোগ চট করে ঘেঁষে না|

৭. আমাদের দেশ গ্রীষ্মপ্রধান| তাই কাজেকম্মে রোদে বেরোতে হয়| যার ফলে আল্ট্রা ভায়োলেট রশ্মি আমাদের ত্বকের খুব ক্ষতি করে| গ্রিন টি নিয়মিত পান করলে ত্বকে আপনা থেকেই সানব্লক তৈরি হয়ে যায়|

৮. শরীরে জমা দূষিত পদার্থ বা ফ্রি-রাডিক্যালস বের করে দেয় গ্রিন টি| এতে শরীর সুস্থ থাকে| চুল কম ঝরে| ত্বকে বলিরেখা কম পড়ে|

মাথায় রাখুন

১. খুব গরম বা খুব ঠান্ডা চা খাবেন না| সব সময় ঈষদুষ্ণ চা পান করুন|

২. অতিরিক্ত চা পান তামাক বা মাদকের মতই ক্ষতিকর|

৩. চেষ্টা করুন ব্ল্যাক বা গ্রিন টি খেতে| এতে অম্বল হয় না| এই চা-ও হালকা| দুধ চা খেলে গ্যাস-অম্বলে ভোগার সম্ভাবনা থাকে|      

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.