ছুটিতে গিয়ে বেপাত্তা কনস্টেবল, যাবজ্জীবন দণ্ডিত হিসেবে পাওয়া গেল তিহার জেলে

652

ছ’মাস ধরে কোনও খোঁজ ছিল না। আচমকাই জানা গেল, নিখোঁজ ব্যক্তি এখন জেলে। সে এখন যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজাপ্রাপ্ত আসামি ! এমন কাণ্ডই হয়েছে উত্তরপ্রদেশের বিজনৌরে। সেখানকার বাধাপুর পুলিশ স্টেশনের ৫৫ বছরের কনস্টেবল কানওয়ার পাল সিংহ এক মাসের ছুটি নিয়ে বাড়ি গিয়েছিল। কিন্তু তার আর চাকরি করতে ফেরা হল না। গোটা ঘটনায় হতভম্ব তার সহকর্মীরাও।

শামি‌লে দেশের বাড়িতে যাওয়ার সময় সহকর্মীরা বলেছিলেন, ফেরার সময় মিষ্টি নিয়ে আসতে। গত বছরের ১৫ নভেম্বর সেই কানওয়ারের সঙ্গে সকলের শেষ দেখা। সাড়ে তিন মাস পেরিয়ে যাওয়ার পরেও কানওয়ার না ফেরায় তাকে বরখাস্ত করা হয়। শুরু হয় এনকোয়ারি। অবশেষে সামনে এল আসল সত্যি। তারপরই কানওয়ারকে চাকরি থেকে বাতিল করা হয়েছে। সে যে এক মারাত্মক অপরাধী। খুনের ঘটনায় জড়িত হয়ে নিজেই চাকরি করছিল পুলিশে !

১৯৮৭ সালের ২২ মে মীরাটের হাসিমপুরে ৪২ জন মুসলিমকে গুলি করে মারে কানওয়ার ও আরও ১৫ জন। খুন করার পরে মৃতদেহগুলি নিয়ে গিয়ে সেচখালে ফেলে দেয় তারা। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। মামলা চলছিল ৩১ বছর ধরে। অবশেষে সুবিচার মিলল।২০১৮ সালের ২২ নভেম্বর রায় দেয় দিল্লি হাইকোর্ট। তার এক সপ্তাহ আগেই ছুটিতে যায় কানওয়ার। রায় বেরনোর পরে তাকে চলে যেতে হয় গারদের পিছনে। সে এখন তিহার জেলে দিন কাটাচ্ছে।

কানওয়ারের এমন কাণ্ডের কথা তার কর্মস্থানের কারওই জানা ছিল না। অবশেষে সামনে এসেছে ভয়ঙ্কর সত্যিটা। দ্রুত চাকরি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে কানওয়ারকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.