আমাদের কাছে একটি খুবই সহজলভ্য উপাদান | নিম একটি বহুবর্ষজীবী ও চিরহরিৎ বৃক্ষ। পাতাগুলি দেখতে কাস্তের মত এবং পাতার কিনারায় ১০-১৭ টি করে খাঁজ থাকে। নিম গাছে এক ধরনের ফল হয়। আঙুরের মতো দেখতে এই ফলের একটি বীজ। ফল তেতো হয়। নিম গাছের কোনও অংশই ফেলে দেওয়ার মত নয় সে কথা আমরা সবাই জানি | নিমের ভেষজ গুণ আয়ুর্বেদ শাস্ত্রেও সুবিদিত | সাধারণ মানুষও জানে নিমের পাতা হোক বা ডাল বা গাছের ছাল – শরীরের জন্য উপকারী সবই | তাই আসুন জেনে নিই নিমপাতাকে কীভাবে কাজে লাগাতে পারি আমরা |

১. নিমপাতা ফাঙ্গাস ও ব্যাকটেরিয়া রোধ করে। ত্বকের সুরক্ষায় জুড়ি নেই এর। ব্রণ হলে নিমপাতা থেঁতো করে লাগালে নিশ্চিত ভালো ফল পাওয়া যাবে।

২. কৃমিনাশক হিসেবে নিম পাতার রস খুবই কার্যকরী।

৩. আমাদের মধ্যে অনেকেরই মাথার স্ক্যাল্প চুলকোয়। নিমপাতার রস নিয়মিত মাথায় লাগালে এই চুলকানি কমে। চুল হয় শক্ত। চুলের শুষ্কতা কমে। নতুন চুল গজাতেও সাহায্য করে।

Banglalive-8

৪. নিমের তেলে থাকে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন ই এবং ফ্যাটি অ্যাসিড যা ত্বক এবং চুলের জন্য উপকারী।

Banglalive-9

৫. নিমপাতার সাথে কাঁচা হলুদ বেটে মিশ্রণ তৈরি করে লাগালে ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধি পায়। হলুদ ব্যবহার করলে রোদ এড়িয়ে চলতে হবে। নিমপাতার চেয়ে হলুদের পরিমাণ হতে হবে কম।

৬. নিমপাতা সেদ্ধ করে নিয়ে সেই জল স্নানের জলের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। যাঁদের চামড়ায় কোনওরকমের সমস্যা আছে বা বারবার চুলকোনোর সমস্যা আছে তাঁরা নিয়মিত এই জলে স্নান করলে দেখবেন চামড়ার সমস্যা কমে আসছে।

৭. নিমপাতা সেদ্ধ জল বোতলে ভরে ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন। কোনও  ফেসপ্যাক তৈরি করার সময় জলের বদলে এই নিমজল ব্যবহার করতে পারেন।

৮. কাটা, ছেঁড়া বা পোড়া জায়গায় নিমপাতার রস ভেষজ ওষুধের মত কাজ করে।

আরও পড়ুন:  শখের দাড়ির যত্ন নিতে মেনে চলুন এই পদ্ধতিগুলি!

৯. নিমের ডাল যে দাঁতের জন্য উপকারী সে কথা বলার অপেক্ষা রাখে না। মুখের দুর্গন্ধ ও দাঁতের জীবাণু রোধে বেশ কার্যকরী নিমডাল।

১০. নিমপাতা রোদে শুকিয়ে গুঁড়ো করে রেখে দিতে পারেন। মুখে মাস্ক হিসেবে এটি ব্যবহার করা যেতে পারে।

১১. নিমকাঠ খুবই শক্ত। এই কাঠে কখনো ঘুণ ধরে না। পোকা বাসা বাঁধে না। উইপোকা খেতে পারে না। প্রাচীনকাল থেকেই বাদ্যযন্ত্র বানানোর জন্য নিমকাঠ ব্যবহার করা হচ্ছে। বর্তমানে নিম কাঠের আসবাবপত্রও তৈরি হচ্ছে।

১২| জামাকাপড়ের আলমারিতে দীর্ঘদিন ধরে ভাঁজ করে রাখা পুরোনো জামাকাপড় অনেক সময়ই পোকা ধরে বা মলিন হয়ে নষ্ট হয়ে যায় | জামাকাপড় ভাল রাখতে ভাঁজ করা জামাকাপড়ের ভাঁজে ভাঁজে রেখে দিন নিমপাতা |

তাহলে দেখলেন তো একই উপাদানের কতরকমের গুণ রয়েছে | যদিও আমাদের দেশে বাগানে বা রাস্তাঘাটে নিমগাছ থাকে বা বাজারেও সহজেই পাওয়া যায় নিম, তাও হাতের কাছে পাওয়ার জন্য টবে নিমগাছের চারা লাগিয়েই রাখতে পারেন কিন্তু |

NO COMMENTS