রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখা থেকে মুখের দুর্গন্ধ দূর করা, পুদিনা পাতার বিভিন্ন উপকারিতা

1016

পুদিনা পাতা আমাদের কাছে একটি পরিচিত উপাদান। সরবত বানানো হোক বা চাটনি‚ স্বাদের আমেজ আনতে পুদিনা পাতার জুড়ি মেলা ভার। এছাড়াও পুদিনা পাতার রয়েছে নানা গুণ। পুদিনা পাতায় রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট‚ ভিটামিন ও মিনারেল। আসুন জেনে নেওয়া যাক এর নানান উপকার।

১| নিয়মিত দাঁত মাজা সত্ত্বেও অনেকেরই মুখে বাজে দুর্গন্ধ বেরোয়। যাদের এরকম সমস্যা আছে তাদের ক্ষেত্রে পুদিনা পাতা মাউথ ফ্রেশনারের কাজ করবে। মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে জলের সঙ্গে পুদিনা পাতা ফুটিয়ে নিয়ে সেই মিশ্রণটি ঠান্ডা করে তা দিয়ে ভাল করে কুলকুচি করে নিন। তরতাজা নিঃশ্বাস পাবেন।

২| পুদিনা পাতায় রয়েছে অ্যান্টিবায়োটিক গুণ। নানারকম ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ রোধে সহায়তা করে পুদিনা পাতা। শুকনো পুদিনা পাতা জলে ফুটিয়ে সেই মিশ্রণ একটি বোতলে ভরে রেখে দিন ফ্রিজে। এক বালতি জলে ১৫ থেকে ২০ চামচ পুদিনা পাতার জল মিশিয়ে নিয়ে স্নান করুন। ব্যাকটেরিয়ার প্রভাবে শরীরে যে দুর্গন্ধ তৈরি হয় তা দূর হবে। এছাড়াও শীতল অনুভূতি পাবেন। গরম কালে পুদিনা পাতার জল স্নানের জলে মিশিয়ে স্নান করলে ঘামাচি‚ চুলকানির মত সমস্যাও থাকবে দূরে।

৩| পুদিনা পাতায় রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস যা পেটের সমস্যার সমাধান করতে সাহায্য করে। যাঁরা হজমের সমস্যা, পেটে ব্যথা বা পেটের অন্যান্য সমস্যায় ভোগেন তাঁরা খাবার পর এক কাপ পুদিনা পাতার জল খাওয়ার অভ্যাস করুন। ৬ থেকে ৭টি পুদিনা পাতা জলে ফুটিয়ে মধু মিশিয়ে তার সঙ্গে সামান্য মধু মিশিয়ে খেলে উপকার পাবেন।

৪| নিয়মিত পুদিনা পাতার রস খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে।

৫| পুদিনা পাতার রস তাত্‍ক্ষণিক ব্যথানাশক উপাদান হিসেবে কাজ করে। পুদিনা পাতার রস চামড়ার ভেতর দিয়ে স্নায়ুতে পৌঁছে স্নায়ু শান্ত করতে সহায়তা করে। মাথাব্যথা বা জয়েন্টের ব্যথার উপশমে পুদিনা পাতা ব্যবহার করা যায়। মাথা ব্যথা হলে পুদিনা পাতার চা পান করতে পারেন। অথবা কয়েকটি পুদিনা পাতা চিবিয়ে খেয়ে নিতে পারেন। জয়েন্টের ব্যথায় পুদিনা পাতা বেটে প্রলেপ দিন। উপশম হবে।

৬|  ব্রণ দূর করতে ও ত্বকের তৈলাক্তভাব কমাতে পুদিনাপাতা বেটে ত্বকে লাগান। ১০ মিনিট রেখে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ব্রণের দাগ দূর করতে প্রতিদিন রাতে পুদিনা পাতার রস দাগযুক্ত জায়গায় লাগান। সম্ভব হলে সারা রাত রেখে সকালবেলায় ধুয়ে ফেলুন। ১ মাসের ব্যবহারেই দাগ কমতে দেখবেন।

৭| মাথায় উকুন হলেও কাজে আসবে পুদিনা পাতা। পাতা বেটে নিয়ে রস ছেঁকে মাথার স্ক্যাল্পে লাগিয়ে নিন। একটি কাপড় মাথায় জড়িয়ে রাখুন। ১ ঘন্টা পরে মাইল্ড শ্যাম্পূ ব্যবহার করে চুল ধুয়ে ফেলুন। ১ মাস এই পদ্ধতি ব্যবহার করুন। উকুনের উৎপাত কমে যাবে।

৮| পুদিনা ত্বককে ঠান্ডা রাখতে সাহায্য করে। খাবারের সঙ্গে নিয়মিত পুদিনা পাতা খেলে ত্বক সতেজ ও সজীব হয়। পুদিনা পাতা মৃত কোষ দূর করে ত্বক মৃসণ করে তোলে। অর্ধেক কাপ পুদিনা পাতা বাটা ও পরিমাণ মত বেসন দিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করে নিয়ে মুখে লাগিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে মুখ ধুয়ে নিলে উপকার পাওয়া যায়।

৯| মহিলাদের অনিয়মিত ঋতুস্রাবজনিত ব্যথার উপশমেও এই পাতা কার্যকরী। ব্যথা হলে পাতা চিবিয়ে খান অথবা বেটে রস করে খান | ব্যথায় উপশম হবে।

১০|  অনবরত হেঁচকি উঠলে পুদিনা পাতার সাথে গোলমরিচ বেটে ছেঁকে নিয়ে সেই রস পান করুন। কিছুক্ষনের মধ্যেই বন্ধ হবে হেঁচকি।

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.