হঠাৎ বরুণ ধওয়ন ও অর্জুন কপূরের বয়স বেড়ে গেল কী করে?

হঠাৎ বরুণ ধওয়ন ও অর্জুন কপূরের বয়স বেড়ে গেল কী করে?

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

এই বছরে বিভিন্ন ট্রেন্ড ভাইরাল হতে দেখা গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে | সম্প্রতি তেমনই একটা ট্রেন্ড হল ‘ওল্ড এজ ট্রেন্ড’ | একটা বিশেষ অ্যাপের সাহায্যে বৃদ্ধ বয়সে আপনাকে কেমন দেখাবে তা দেখে নিতে পারবেন | স্ন্যাপচ্যাটে ‘ বেবি ফিল্টার’-এর পর এই নতুন ট্রেন্ড সুপারহিট হয়েছে সবার মধ্যে | আর এই মজার ট্রেন্ডে মেতেছেন বলিউডের অনেকেই | ইতিমধ্যেই অর্জুন কপূর‚ বরুণ ধওয়ন‚ সোনম কপূর‚ দীপিকা পাদুকোন‚ রণবীর সিং নিজেদের বৃদ্ধ বয়সের ছবি পোস্ট করেছেন তাঁদের সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় |

এই অ্যাপ ২০১৭ সালেই এসেছিল | কিন্তু সম্প্রতি নতুন ফিল্টার যোগ করার পর তা জনপ্রিয় হয়েছে | এই অ্যাপের সাহায্যে ৬০ বছর পর আপনাকে কেমন দেখাবে তা দেখে নিতে পারবেন | সম্প্রতি বরুণ ধওয়ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে জানিয়েছেন উনি রিবক ইন্ডিয়ার নতুন অ্যাম্বাসাডর | সঙ্গে নিজের কয়েকটা ছবিও শেয়ার করেন উনি | ছবিতে সিক্স প্যাক অ্যাবের সঙ্গে শোভা পাচ্ছে সাদা চুল‚ দাড়ি এবং বলিরেখা | ক্যাপশনে উনি লেখেন বৃদ্ধ বয়সেও এতটাই ফিট থাকতে চান উনি | তবে ভক্তদের মধ্যে অনেকেই বরুণকে অনিল কপূরের সঙ্গে গুলিয়েছেন | 

View this post on Instagram

Old age hit me like .. 👀

A post shared by Arjun Kapoor (@arjunkapoor) on

বাদ যাননি বরুণের বেস্ট ফ্রেন্ড অর্জুন কপূরও | উনিও নিজের বুড়ো বয়সের ছবি শেয়ার করেছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে |

প্রসঙ্গত বরুণ এই মুহূর্তে ‘স্ট্রিট ড্যান্সার’ ছবির শ্যুটিং নিয়ে ব্যস্ত | এই ছবিতে ওঁর বিপরীতে দেখা যাবে শ্রদ্ধা কপূরকে | এছাড়াও সারা আলি খানের সঙ্গে ‘কুলি নম্বর ১’-এর রিমেকেও দেখা যাবে ওঁকে | অন্যদিকে অর্জুন কপূর এই মুহূর্তে  আশুতোষ গোওয়ারিকর পরিচালিত ‘পানিপথ’ ছবির শ্যুটিং নিয়ে ব্যস্ত|

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

Handpulled_Rikshaw_of_Kolkata

আমি যে রিসকাওয়ালা

ব্যস্তসমস্ত রাস্তার মধ্যে দিয়ে কাটিয়ে কাটিয়ে হেলেদুলে যেতে আমার ভালই লাগে। ছাপড়া আর মুঙ্গের জেলার বহু ভূমিহীন কৃষকের রিকশায় আমার ছোটবেলা কেটেছে। যে ছোট বেলায় আনন্দ মিশে আছে, যে ছোট-বড় বেলায় ওদের কষ্ট মিশে আছে, যে বড় বেলায় ওদের অনুপস্থিতির যন্ত্রণা মিশে আছে। থাকবেও চির দিন।