১৯৯৩ সালে মুক্তি পায় যশ চোপড়া পরিচালিত সাইকোলজিকাল থ্রিলার ডর | আমরা সবাই জানি এই ছবির মুখ্য চরিত্রে দেখা গিয়েছিল শাহরুখ খান‚ জুহি চাওলা আর সানি দেওলকে | শাহরুখের তুলনায় সানি কিন্তু অনেক বেশি জনপ্রিয় অভিনেতা ছিলেন সেই সময় | ততদিনে ওঁর অর্জুন‚ ঘায়েল‚ ত্রিদেবএইসব ছবি মুক্তি পেয়ে গেছে | তবে সানির মতে যশ চোপড়া ওঁকে ঠকিয়েছিলেন | উনি ছবির নায়ক ছিলেন ঠিকই কিন্তু ওঁর থেকে বেশি লাইমলাইট দেওয়া হয় শাহরুখকে | ডর করার পর সানি প্রতিজ্ঞা করেছিলেন উনি আর কোনো দিন যশ চোপড়া ব্যানারে কাজ করবেন না | এবং আজ অবধি সেই প্রতিজ্ঞা রেখেছেন উনি | সম্প্রতি সনির একটা পুরনো সাক্ষৎকার সামনে এসেছে যেখান থেকে জানা যাচ্ছে ছবির শ্যুটিং চলাকালীনও একদিন সানি যশ চোপড়ার ওপর এতটাই রেগে গিয়েছিলেন যে নিজের জিন্সের প্যান্ট ছিঁড়ে ফেলেন উনি |

Banglalive

সানির কথায় শ্যুটিং চালাকালীন এমন অনেক কিছু ঘটে যা আমার বিশ্বাস করতে কঠিন লাগে | ছবির পর্দায় এমন অনেক জিনিস দেখানো হয় যা একেবারেই বাস্তবিক নয় | আর সেই সব দৃশ্যের শ্যুটিং করতে গিয়ে আমার খুব অস্বস্তি হয় |ডর ছবির ক্ষেত্রেও তাই হয়েছিল | আমি আর শাহরুখ একটা দৃশ্যের শ্যুটিং করছিলাম যেখানে শাহরুখের চরিত্র আমার গায়ে ছুরি বসিয়ে দিচ্ছে | আমি এই ছবিতে একজন কমান্ডো অফিসারের চরিত্রে অভিনয় করেছিলাম | এটা আমি কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলাম না যে একজন কমান্ডো অফিসারকে একজন ব্যক্তি এত সহজে কী করে ছুরি বসিয়ে দিতে পারে?

আমার মধ্যে অনেক্ষণ ধরে এই ডিবেট চলছিল | আমি বরাবর বড়দের শ্রদ্ধা করি | আমার ভাবনার কথা আমি যশ চোপড়াকে জানাই | কিন্তু উনি আমার কথা শুনলেন না | উনি পরিচালক‚ তাই যা বলবেন আমাদের তাই করতে হবে | বুঝিনি আমি এতটা রেগে গিয়েছি | আমার হাত প্যান্টের পকেটে ঢোকানো ছিল | হঠাৎ অনুভব করলাম রাগের মাথায় আমি জিন্সের প্যান্টটা ছিঁড়ে ফেলেছি | আমাকে দেখে সবাই ভয় পেয়ে যায় | আমি কিন্তু কাউকে কিছু বললাম না | সেখান থেকে চুপচাপ বেরিয়ে যাই | পরে মাথা ঠান্ডা হলে আবার শ্যুটিং স্পটে ফিরে আসি |

আরও পড়ুন:  গুরুতর আহত চিন্ময় রায়! আত্মহত্যার জন্যই কি বহুতল থেকে ঝাঁপ অভিনেতার?

NO COMMENTS