শাস্ত্র অনুযায়ী হিন্দুধর্মে সবথেকে তিনটি পুণ্যতিথির মধ্যে একটি অক্ষয় তৃতীয়া | বৈশাখ মাসে শুক্লাপক্ষের তৃতীয়া তিথিতেই পালিত হয় এই শুভ পার্বণ | বলা হয়‚ এই দিনে যা কাজ করা হয়‚ তার ফল অক্ষয় হয়ে থাকে জন্মজন্মান্তরে | জৈনদের কাছেও এই দিন অত্যন্ত শুভ | আসুন দেখে নিই এই বিশেষ দিনের মাহাত্ম্য |

Banglalive

# এই তিথিতেই জন্ম হয়েছিল বিষ্ণুর ষষ্ঠ অবতার পরশুরামের |

# মহাকবি ব্যাস এই পুণ্যলগ্নে শুরু করেছিলেন মহাভারত রচনার কাজ | তাঁর মুখে শুনে শুনে কলম ধরেছিলেন গণপতি |

# জৈন তীর্থঙ্কর ঋষভনাথ এক বর্ষব্যাপী উপবাস ভঙ্গ করেছিলেন এই তিথিতেই | নিজের অঞ্জলিতে পান করেছিলেন আখের রস | তাই এই তিথিতে জৈন ধর্মাবলম্বীরা আখের রস পান করাকে শুভ বলে মানে |


# যদি রোহিণী নক্ষত্রে সোমবার পড়ে অক্ষয় তৃতীয়া‚ তবে তার মাহাত্ম্য সবথেকে বেশি |  

# অক্ষয় তৃতীয়ায় যে কোনও কাজ শুরু করা খুব শুভ | নতুন ব্যবসা‚ নতুন লগ্নি‚ সবমিলিয়ে ব্যবসায়ীদের কাছে খুব শুভ দিন |

# এই দিনে সোনার গয়না কেনাকেও শুভ বলে মনে করা হয় |

 

# যদি পাত্র পাত্রীর মধ্যে ঠিকুজি কুষ্ঠিতে মিল না থাকে তবে বিয়ের জন্য বেছে নেওয়া হয় অক্ষয় তৃতীয়াকে | তাতে নাকি সব দোষ খণ্ডন হয় | এই কারণেই অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে ঐশ্বর্য রাইয়ের বিয়ে হয়েছিল এই তিথিতে | ২০০৭-এর ২০ এপ্রিল |

# মহাভারতে কথিত‚ এই তিথিতেই দ্রৌপদীকে অক্ষয়-পাত্র দান করেছিলেন প্রিয়সখা শ্রীকৃষ্ণ | যাতে কোনও ক্ষুধার্ত দ্রৌপদীর হেঁশেল থেকে খালি হাতে ফিরে না যায়  |

# বৈষ্ণবদের কাছেও এই তিথি পবিত্র | কারণ এই দিনেই দ্বারকারাজ শ্রীকৃষ্ণকে চিঁড়ে দিয়ে আপ্যায়িত করেছিলেন তাঁর দরিদ্র বাল্যবন্ধু সুদামা | শ্রীকৃষ্ণের আশীর্বাদে দূর হয়েছিল সুদামার দারিদ্র্য |

# এই দিনে লক্ষ্মী-নারায়ণের পুজো করলেও পুণ্যলাভ হয় | বর্ষিত হয় মা লক্ষ্মীর কৃপাশিস |


# অনেকেই পুণ্যসঞ্চয়ের লক্ষ্যে এই তিথিতে আতপ চাল‚ ঘি‚ ফল‚ বস্ত্র‚ কাঁচা হলুদ‚ সব্জি আর নুন দান করে থাকেন | ভক্তিভরে পুজোর পরে উপবাস ভঙ্গ করে খাওয়া হয় গোবিন্দভোগ চাল আর মুগ ডালের খিচুড়ি |

আরও পড়ুন:  রাবণের আদেশ এক গ্রহ অমান্য করায় নিশ্ছিদ্র হতে পারল না মেঘনাদের জন্মকুণ্ডলী

NO COMMENTS