পার্টির আমোদপ্রমোদে যাতে ছেদ না পড়ে তার জন্য সদ্যোজাতকে নোংরার মধ্যে ফেলে দিয়ে আবারও গিয়ে অমোদে যোগ দিলেন মা |

ঘটনাটি ঘটেছে রাশিয়ায় | ৩১ বছরের ইউলিয়া নামের ওই মহিলা রিয়াজানের একটি ফ্ল্যাটে পার্টি চলাকালীনই সন্তান প্রসব করেন | কিন্তু নেশাগ্রস্ত অবস্থায় বিন্দুমাত্র চিন্তাভাবনা না করেই ঝামেলা মেটাতে সদ্যোজাত শিশুটিকে একটি ব্যাগের মধ্যে ভরে ব্যাগটি জঞ্জালের মধ্যে ফেলে দিয়ে ফিরে যান পানের আসরে | সেখানে উপস্থিত কোনও মানুষকেও তিনি জানাননি যে তিনি সন্তান প্রসব করেছেন | বরং তাঁর কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছিল মদ্যপান |

পার্টিতে উপস্থিত এক প্রত্যক্ষদর্শী বাথরুমে গিয়ে কান্নার আওয়াজ শুনতে পেয়ে প্রথমে মনে করেছিলেন হয়ত বা বিড়ালছানা কাঁদছে | কিন্তু সন্দেহ হওয়ায় ব্যাগটি তুলে হাতে নিয়ে সেটি খুলে দেখতে পান তার মধ্যে ভরা রয়েছে একটি সদ্যোজাত শিশু | জঞ্জালের মধ্যে থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে হতবাক সেই প্রত্যক্ষদর্শী সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করেন | আশঙ্কা করা হচ্ছে ব্যাগে বন্ধ থাকার দরুণ শিশুটির কোনও অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকল হয়ে যেতে পারে |

ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসার পরেই ইউলিয়া নামের ওই মহিলাকে সদ্যোজাত শিশুটির খুনের চেষ্টা করার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে | তাঁর তিন ও চার বছরের দুটি সন্তানকে তাঁর কাছ থেকে সরিয়ে নিয়ে অন্য জায়গায় রাখা হয়েছে |

তদন্তকারী পুলিশ অফিসার অ্যানজেলিকা ইয়েভদোকিমোভা জানিয়েছেন যে ইউলিয়া জেরায় জানিয়েছেন তিনি ওই শিশুটি চাননি | শিশুটিকে জঞ্জালের মধ্যে ফেলে দেওয়ার আগে একবার নিজের হাতে তুলে দেখনওনি যে শিশুটি মেয়ে না ছেলে | যখন পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে তখনও তিনি নেশাগ্রস্ত অবস্থায় ছিলেন | এমনকি তিনি এও জানিয়েছেন প্রসব করার পরে তার নাড়ি এমনিই খুলে আসে | তাই প্রসব করার পরে নাড়ি কাটারও প্রয়োজন হয়নি | ওই অঞ্চলের শিশু অধিকার কমিশনার একাতেরিনা মুখিনা জানিয়েছেন ডাক্তারদের প্রচেষ্টায়তেই মৃত্যুমুখ থেকে ফিরে নতুন জীবন পেয়েছে শিশুটি | তাঁদের এই কাজের জন্য বিশেষভাবে প্রশংসাও জানিয়েছেন জানান তিনি |

আরও পড়ুন:  সবুজ বিশ্ব গড়ার কাজে সবচেয়ে উদ্যোগী ভারত, মতামত নাসার

NO COMMENTS