স্ন্যাক্স হিসেবে চলবে নাকি ‘রক্তের সসেজ’ আর ‘লাল পিঁপড়ের চাটনি’ ?

954

একটু অফবিট খাবারের দিকে চোখ রাখা যাক | অন্যান্য জিনিসের মতো ভারতের খাবারদাবারেও বৈচিত্র কিছু কম নেই | তাই‚ শুরু করা যাক আমাদের দেশ দিয়েই |

লাল পিঁপড়ের চাটনি-

ছত্তিশগড়ের উপজাতিদের এই খাবারের মূল উপকরণ লাল পিঁপড়ে | টক-ঝাল স্বাদের এই চাটনিতে মেশানো হয় নানা রকমের মশলা |

রক্তের সসেজ –

পোশাকি নাম ‘ জুমা’ | নাগাল্যান্ডের জনপ্রিয় স্থানীয় খাবার | তৈরি করা হয় চমরী গাই-এর রক্ত দিয়ে | জমাট বাঁধা রক্ত সসেজের আকারে |

কফি উইথ হাতির বর্জ্য –

থাইল্যান্ডের জনসমাজে হাতি খুবই গুরুত্বপূর্ণ | হাতির বর্জ্য পদার্থও ওই দেশে গ্রহণযোগ্য | ফসলের সার টার নয় | একদম খাবার হিসেবে | হাতির বর্জ্য মিশিয়ে থাই দেশে বাননো হয় কফি | যার দাম আকাশছোঁয়া |

কুমিরের পকোড়া –

মরিশাসে শিকারি নিজেই খাবার | রেস্তোরাঁর টেবিলে অর্ডার দিলেই চলে আসে কুমিরের মাংসের সুস্বাদু পকোড়া বা অন্যান্য ডিশ |

গাধার মাংস –

শুধু বোঝা বয়েই যাবে ? আর কোনও ভাবে মানুষের সেবায় লাগবে না ? আলবৎ লাগবে | তা-ই তো‚ ইতালির দক্ষ রাঁধুনিরা গাধার মাংস দিয়ে বানায় ‘ সুমারো’ | সেটা চেটেপুটে খেয়েও নেন দ্য ভিঞ্চির দেশের মানুষ |

দেখবেন নাকি এই বিকল্পগুলো চেখে ?

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.