শুধু দাঁতের যত্নে নয় রূপচর্চাতেও সাহায্য করে টুথপেস্ট!

শুধু দাঁতের যত্নে নয় রূপচর্চাতেও সাহায্য করে টুথপেস্ট!

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

দাঁতের যত্ন নিতে তো আমরা সকলেই টুথপেস্ট ব্যবহার করি। কিন্তু আপনি কি কখনও ত্বকের পরিচর্যাতে টুথপেস্টের ব্যবহার করেছেন। আপনি কি জানেন টুথপেস্টের সাহায্যে আপনি এমন কিছু উপকারিতা পাবেন যা নামী-দামি সৌন্দর্যবর্ধক প্রসাধনীও দিতে পারে না। শুনে অবাক হলেও এটি সত্যিই। তবে জেনে নেওয়া যাক রূপচর্চায় কীভাবে সাহায্য করতে পারে টুথপেস্ট।

# অনুজ্জ্বল ত্বকের সমস্যায়

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে টুথপেস্টের কোনও বিকল্প নেই। সাধারণ ফেসওয়াসের মতোই টুথপেস্ট ব্যবহার করুন এবং প্রচুর পরিমাণে জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। তফাৎ টা আপনি নিজেই দেখতে পাবেন।

# ব্রণর সমস্যায়

ব্রণর সমস্যাতেও টুথপেস্ট দারুন কার্যকরী, বিশেষ করে ব্যথাযুক্ত ব্রণর ক্ষেত্রে। রাতে ঘুমানোর আগে ব্রণর উপর টুথপেস্টের প্রলেপ লাগিয়ে ঘুমাতে যান। সকালে উঠে দেখবেন ব্রণর ফোলা ভাব অনেক কমে গিয়েছে এবং ব্যথাও অনেক কমে এসেছে।

# হোয়াইট হেডস-এর সমস্যায়

ধুলো-ময়লা, দূষণ, মেকআপ ইত্যাদির কারণে ত্বকের রোমকূপ বন্ধ হয়ে যায়। ফলে দেখা দেয় ব্ল্যাক হেডস। যে সব জায়গায় এই হোয়াইট হেডস রয়েছে যেমন, নাক, কপাল, চিবুক সে সব জায়গায় পুরু করে টুথপেস্টের প্রলেপ লাগান। শুকিয়ে গেলে খুঁটে তুলে ফেলুন। এরপর ভাল করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এর ফলে হোয়াইট হেডস-এর সমস্যা অনেক কমে আসবে।

# সান ট্যান দূর করতে

সান ট্যান দূর করতেও দারুণ কাজ দেয় টুথপেস্ট। এক্ষেত্রে আপনাকে কিছুটা সময়ও দিতে হবে। ঠান্ডা জল দিয়ে ত্বক ভিজিয়ে নিয়ে পুরু করে প্যাক লাগানোর মতো টুথপেস্ট মেখে ২০-২৫ মিনিট রেখে দিন। এরপর প্রচুর জল দিয়ে ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন ট্যান অনেকটা কেটে গিয়েছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

pandit ravishankar

বিশ্বজন মোহিছে

রবিশঙ্কর আজীবন ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের প্রতি থেকেছেন শ্রদ্ধাশীল। আর বারে বারে পাশ্চাত্যের উপযোগী করে তাকে পরিবেশন করেছেন। আবার জাপানি সঙ্গীতের সঙ্গে তাকে মিলিয়েও, দুই দেশের বাদ্যযন্ত্রের সম্মিলিত ব্যবহার করে নিরীক্ষা করেছেন। সারাক্ষণ, সব শুচিবায়ু ভেঙে, তিনি মেলানোর, মেশানোর, চেষ্টার, কৌতূহলের রাজ্যের বাসিন্দা হতে চেয়েছেন। এই প্রাণশক্তি আর প্রতিভার মিশ্রণেই, তিনি বিদেশের কাছে ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের মুখ। আর ভারতের কাছে, পাশ্চাত্যের জৌলুসযুক্ত তারকা।