Tags Posts tagged with "Tollywood"

Tollywood

দীর্ঘ ৬ মাসের প্রতীক্ষার পর আবার দর্শক ছবি দেখতে পারবেন প্রিয়া সিনেমা হলে। আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি অর্থাৎ ভাষা দিবসের দিন  ১৯৫৯ সালে তৈরি হওয়া কলকাতার ঐতিহ্যপূর্ণ সিনেমা হল সর্বসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হবে । আর পর্দা খোলা মাত্রই দর্শক দেখতে  পাবেন সত্যজিৎ রায়ের ‘গুপি গাইন বাঘা বাইন’ ।

প্রসঙ্গত গত বছর ৫ অগাস্ট নাইট শো চলাকালীন হঠাৎই পাশের এক দোকানে আগুল লাগে। এবং সেই আগুন ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়ে চারিদিকে। কর্তৃপক্ষের সূত্রে জানা যায়,বিশেষ ক্ষয়ক্ষতি না হলেও সবকিছু খতিয়ে দেখতে এবং তা মেরামত করার জন্যই বন্ধ রাখা হয়েছিল হলটি। দমকল ও পুলিশের অনুমতি নিয়েই ফের হলটি খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলেও খবর।

তবে বারতি পাওনা হিসেবে থাকছে ‘নগরকির্তন’ও। হলটি খোলা মাত্রই দেখানো হবে কৌশিক গাঙ্গুলী পরিচালিত নতুন ছবি ‘নগরকির্তন’। জানা যাচ্ছে পরিচালকের প্রথম ছবিও দেখানো হয়েছিল প্রিয়া সিনেমা হলেই।

টলিউডে কিছুদিন আগেই ড্রিম ওয়েডিং সারলেন অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলী। বর হিসেবে কোন নায়ককে নয়, পরিচালক রাজ চক্রবর্তীকেই পছন্দ তাঁর। তাই বছরখানেকের প্রেমের পর একেবারে বিয়ের পিঁড়িতে নিয়ে গেলেন রাজকে। স্বাভাবিকভাবেই এবারের ভ্যালেন্টাইন্স ডেও বাকি বছরের থেকে কিছুটা স্পেশল এই জুটির। তবে সেই আশায় জল ঢেলে দিলেন রাজ নিজেই। বিয়ের পর প্রথম ভ্যালেনটাইন্স ডে তেও পাশে থাকলেন না বৌ-এর। 

এবার আসা যাক আসল কারণে। জানা যাচ্ছে রাজ চক্রবর্তীর নতুন ছবি ‘শেষ থেকে শুরু’-এর শুটিং-এ আপাতত ব্যস্ত পরিচালক। তাই সেই কাজেই পাড়ি দিলেন লন্ডনে। ছবিটির প্রযোজনার দায়িত্বে রয়েছেন টলি তারকা জিত। পাশাপাশি প্রধান চরিত্রেও দেখা যাবে তাঁকেই। তবে শুধু রাজই নয়,সঙ্গে গিয়েছেন বাকি কলাকুশলীরাও। জাননি শুধু তাঁর স্ত্রী শুভশ্রী। 

View this post on Instagram

Kaya bolti tu… @subhashreeganguly_real

A post shared by Raj Chakraborty (@rajchoco) on

শুটিং-এর কাজে বাইরে থাকলেও বৌ-কে যে খুবই মিস করছেন রাজ তা বোঝা যাচ্ছে তাঁর ইনস্টাগ্রাম পোস্ট দেখেই। তাই হয়তো লন্ডনের মাটি ছোঁয়ার আগে থেকেই প্রতিটি মুহূর্তের ছবি পোস্ট আপডেট করছেন তাঁর ইনস্টাগ্রামে। সেখানেই রাজ নিজের একটি ছবি পোস্ট করে শুভশ্রীর উদ্দেশে লিখেছেন ‘কেয়া বলতি তু’।

বলিউডের পাশাপাশি #MeeToo এবার টলিউডেও। অভিযোগ ‘রসগোল্লা’-ছবির পরিচালক পাভেলের বিরুদ্ধে। এবং সেই খবরটি আপাতত ছড়িয়ে পরেছে গোটা টলি পাড়া জুড়ে।

সম্প্রতি অভিনেত্রী অনুপমা চক্রবর্তী একটি ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে পাভেলের বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ আনেন। সেই পোস্ট অনুযায়ী,বেশ কয়েকবছর আগে অডিশনের সূত্রে আলাপ হয় পাভেলের সঙ্গে, রসগোল্লা ছবির জন্য অভিনেতা অভিনেত্রীর খোঁজ চলছে তখন। সেই সময়ই তাঁকে, অনুরূপাকে পছন্দ হয় পাভেলের। এরপর প্রায়ই চিত্রনাট্য নিয়ে বসতেন তাঁরা, পাভেলের নাকতলার বাড়িতেও যেতেন অভিনেত্রী। তিনি লিখছেন, “আমি তখন হতাশায় ভুগছি, তেল মাখা চুল,কুর্তি আর মেকআপ ছাড়াই পৌঁছে যাই ওঁর  বাড়িতে। সেখানেই যৌন হেনস্থার শিকার হতে হয়। ওর আচরণে স্পষ্টই বোঝা গিয়েছিল আমাকে গরীব ঘরের মেয়ে মনে করেছিল পাভেল।” অভিনেত্রী আরও লেখেন ‘একদিন হঠাৎই পেছন থেকে জড়িয়ে ধরে আমায় চুমু খেতে শুরু করে, আমি কোনওক্রমে নিজেকে ছাড়িয়ে নিয়ে পালিয়ে আসি সেখান থেকে।”

তবে এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন পাভেল। তাঁর দাবি ২০১৬ সালে এইধরনের কোন ঘটনা ঘটে থাকলে আজকে এতদিন পর সেই কথা কেন বলছেন অভিনেত্রী। এদিকে অভিনেত্রীর কথায় নিজেকে টলিউডে কিছুটা প্রতিষ্ঠিত করতে চেয়েছিলেন আগে। নাহলে তাঁর কোন কথারই গুরুত্ব দেওয়া হত না বলে জানান অভিনেত্রী।

প্রসঙ্গত,সম্প্রতি বিরসা দাশগুপ্তর ছবি’ ক্রিসক্রস’-এ অভিনয় করেছেন অনুপমা চক্রবর্তী। এছাড়াও জি ফাইভের ‘কালী’ সহ আড্ডা টাইমস-এর সিরিজ ‘ইন দেয়ার লাইফ’-এ দেখা যাবে এই অভিনেত্রীকে। অন্যদিকে ‘বাবার নাম গান্ধীজি’ ছবি দিয়ে টলিউডে পা রাখলেও ‘রসগোল্লা’ ছবি পরিচালনার পরই জনপ্রিয় হন পাভেল।

খুব শিগগিরি টেনিদা ফিরছেন বড়পর্দায়। এবার সাহিত্যের সেই বিখ্যাত চরিত্রকে রূপ দেবেন বাংলা সিনেমা জগতের অন্যতম অভিনেতা তথা কৌতুকাভিনেতা কাঞ্চন মল্লিক। সৌজন্যে পরিচালক সায়ন্তন ঘোষাল।

জানা যাচ্ছে পরিচালক শুরুর থেকেই নাকি এই চরিত্রের জন্য বেছে রেখেছিলেন কাঞ্চনকেই। সেই মত করেই তাঁর ছবিটিকে ভাবা রয়েছে বলেও জানিয়েছেন পরিচালক খোদ। অভিনেতার কমিক টাইমিং থেকে শুরু করে অভিনয় দক্ষতা সকলেরই জানা। এবং টেনিদার সঙ্গে কাঞ্চন মল্লিকের এই বিষয় বেশ মিল পাওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেন পরিচালক সায়ন্তন ঘোষাল। সম্ভবত এ বার টেনিদা যাবেন ‘ঝাউবাংলো রহস্য’ সমাধান করতে। সঙ্গে থাকবেন ক্যাবলা,প্যালা এবং হাবুল। কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে,এই চরিত্রগুলিতে দেখা যেতে পারে একাধিক নতুন মুখ। তবে সব্যসাচী চক্রবর্তীর সুপুত্র গৌরব চক্রবর্তীকে একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে রাখতে চলেছেন পরিচালক। এর আগে বড়পর্দায় টেনিদা হিসেবে বিখ্যাত হয়েছিলেন বাংলা সিনেমার বর্ষীয়ান অভিনেতা চিন্ময় রায়।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, গল্প এক থাকলেও সময়কাল পরিবর্তন করা হবে এই ছবিতে। বর্তমান প্রেক্ষাপটেই ছবিটি তৈরি করতে চান নির্মাতারা। প্রযোজনায় রয়েছেন সুরিন্দর ফিল্মস। এবং খুব শীঘ্রই ছবির শুটিং শুরু করে দেওয়া হবে বলেও খবর। তবে জানিয়ে রাখা ভাল পরিচালকের নাম কিছুটা আনকোরা হলেও এটি তাঁর ডেব্যু ছবি নয়। এর আগে  ‘যকের ধন’ ছবিটাও  পরিচালনা করেছিলেন সায়ন্তন।

দক্ষিণভারতের ভগবান বলা হয় রজনীকান্তকে। কারণ একজন সফল অভিনেতার পাশাপাশি মহান মানুষও তিনি। মানুষের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে যিনি দুবার ভাবেন না। আজ তাঁর পরিবারেই খুশির দিন। ফের বিয়ের মরশুম রজনীকান্তের পরিবারে।

আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি বসবে রজনীকান্তের কন্যা সৌন্দর্যর বিয়ের আসর। ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে বিয়ের যাবতীয় অনুষ্ঠান। চলতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে অভিনেতা, ব্যবসায়ী বিশাগান বানানগামুদি নামে এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে এবার বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন রজনীকান্ত-কন্যা। জানা যাচ্ছে খুব আড়ম্বর করে নয়,হালকা মেজাজেই বিয়ে সেরে ফেলতে চান মেয়ে সৌন্দর্য। ঘনিষ্ট কিছু আত্মীয় পরিজন ও বন্ধুবান্ধবদের নিয়েই হবে এই অনুষ্ঠান। কিন্তু প্রশ্ন থেকেই যায় যে দক্ষিণের এত বড় একজন সুপারস্টাররের বিয়েতে এত অল্প ব্যবস্থা কেন?

তবে এটি প্রথমবার নয়, দ্বিতীয়বার গাঁটছড়া বাধতে চলেছেন সৌন্দর্য। এর আগে অশ্বিন রাজকুমারের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল তাঁর। কিন্তু সেই বিয়ে সফল হয় নি।  দীর্ঘ ৭ বছর একসঙ্গে সংসার করেছিলেন তাঁরা। এমনকি সৌন্দর্য ও আশ্বিনের সন্তানও রয়েছে। নাম বেদ কৃষ্ণ। তবে ছাড়াছাড়ি হয়ে যাওয়ার পর সে এখন থাকে রজনীকান্তের পরিবারের সঙ্গেই। হয়তো দ্বিতীয় বিয়ে বলেই বেশী জাঁকজমক করতে চাইছেন না সৌন্দর্য !

আমরা কথায় কথায় মানুষদের গাল দিয়ে থাকি ‘কুকুরের বাচ্চা’,’শুয়োরের বাচ্চা’। কিন্তু মানুষের বাচ্চা বলে গাল দিতে শুনেছেন কখনও? আচ্ছা ঠিক কী করেছিল এই খুদে কুকুরছানাগুলো? গত দুদিন ধরে এন আর এস-এ ঘটে যাওয়া পশু হত্যার মত একটি মর্মান্তিক ঘটনার পর গর্জে উঠেছে কলকাতা। রুখে দাঁড়িয়েছে সেলেবরাও। আর এবার এই বিষয় মন্তব্য করতে দেখা গেল টলি অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীকে।

পশুদের যে তিনি বরাবরই ভালবাসেন তা জানতে বাকি নেই কারওরই। তাহলে তাঁর কাছে এই ১৬টি কুকুরছানার হত্যা যে কতটা বেদনাদায়ক তা আন্দাজ করা যায় ভাল মতই। তাই রাগে, যন্ত্রণায় অস্থির হয়ে  অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী বলেছেন,”যে ভাবে কুকুরগুলোকে পিটিয়ে মেরেছে, ওদের ওভাবেই পিটিয়ে মারা হোক।” মিমির এই মন্তব্যে একমত হয়েছেন টলি অভিনেত্রী তথা পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর স্ত্রী শুভশ্রীও।

গত রবিবার কলকাতার নীলরতন সরকার হাসপাতালে ১৬টি কুকুর ছানাকে যে ভাবে খুন করা হয়েছে  তাতে শহর রাগে ফুঁসছে। খুনের অভিযোগে মঙ্গলবার নার্সিং কলেজের দুই ছাত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কিন্তু তারপরেও এ দিন এন্টালি থানার বাইরে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন শহরের পশুপ্রেমীরা। সামিল হয়েছিলেন অনেক সেলেবরাও। তাঁরা দাবি করেছেন, অভিযুক্তদের যেন জামিনে ছাড়া না হয়। ওদের যেন কঠিনতম সাজা হয়।

একটি ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে গায়ক শিলাজিৎ জানান,যতক্ষণ না দোষীরা শাস্তি পাচ্ছেন,ততদিন এই লড়াই চলবে। আবার আর একদিকে অভিনেতা তথাগত মুখার্জি জানান,একজন মানুষের হত্যা করলে ঠিক যত বছরের শাস্তি হয়,ঠিক তেমনই ১৬টি পশুর হত্যার পরও একইভাবে শাস্তি দেওয়া হোক তাঁদের। যদিও পশু হত্যার জেরে বারবার ছাড়া পেয়ে এসেছেন দোষীরা। কারণ সেইভাবে আইনের ঘেরাটোপ থেকে এখনও ব্রাত্য নিরীহ পশুরা।

বিয়ে হয়েছে মাত্র ১ বছর গড়িয়েছে। আর তার মধ্যেই বিচ্ছেদের পথ বেছে নিলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী ও তাঁর স্বামী কৃষ্ণা ভিরাজ। বেশ কিছুদিন ধরেই আলাদা থাকছিলেন তাঁরা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আদালতের সিলমোহর পড়ল দ্বিতীয় বিয়ের উপরও।

২০১৭-র জুলাইয়ে বিয়ে হয় টলি অভিনেত্রী শ্রাবন্তী ও মুম্বই-র মডেল কৃষ্ণ ভিরাজের। সেই সময় পরিবারের লোকজন এবং ইন্ডাস্ট্রির অনেকেই সেই বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু কয়েক মাস পর থেকেই তাঁদের মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় আলাদা থাকতে শুরু করেছিলেন দম্পতি। এরপর যৌথ সম্মতিতে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা করেন শ্রাবন্তী এবং কৃষ্ণ। শ্রাবন্তীর আইনজীবী অনুনয় বসু বলেন, ২০১৭ সালে পারস্পারিক বোঝাপড়ার ভিত্তিতে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা দায়ের হয়েছিল। মঙ্গলবার আলিপুর আদালতের জেলা বিচারক রবীন্দ্রনাথ সামন্ত তাতে সিলমোহর দিয়েছেন।

২০০৩ সালে পরিচালক রাজীব বিশ্বাসের সঙ্গে প্রথম বিয়ে করেন শ্রাবন্তী। আর সেই বিয়েরই সন্তান ঝিনুক। সেই বিয়েও টেকেনি অভিনেত্রীর। আর তারপরই ২০১৭ সালে হওয়া মুম্বই মডেলের সঙ্গে দ্বিতীয় বিয়ে টেকাতে পাড়লেন না শ্রাবন্তী।

প্রিয়া প্রকাশ বললেই সবার আগে মাথায় আসে সেই কয়েক সেগেন্ডের মুখাভঙ্গী যাতে ঘায়েল হয়েছিল গোটা নেট দুনিয়া। মালায়ালাম অভিনেত্রীর পরিচয় জানার জন্য একসময় পাগল ছিলেন দর্শক। তাই ২০১৮ এর গুগল সার্চে সব সেলেবদের ছাপিয়ে শীর্ষে ছিলেন এই অভিনেত্রী। তবে বছর ঘুরে গেলেও প্রিয়া প্রকাশের জাদু কমেনি বিন্দুমাত্র। তাই দক্ষিণী ছবির পাশাপাশি এবার বলিউডে পা রাখতে চলেছেন অভিনেত্রী।সম্প্রতি তাঁর বলিউডে ডেব্যু ছবি ‘শ্রিদেবী বাংলো’-র ট্রেলার রিলিজ হয়ে গিয়েছে। তবে সেই নিয়ে বিতর্কেও জড়িয়েছেন অভিনেত্রী।  

ইতিমধ্যেই বলিউডে আনাগোনাও শুরু হয়ে গিয়েছে তাঁর। কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে করণ জোহরের নতুন মাল্টিসারার ছবি ‘তখত’-এ নাকি দেখা যেতে পারে এই অভিনেত্রীকে। আর সেই জন্যই ভিকি কৌশল ও রণবীর সিং-র সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন অভিনেত্রী। দেখে নিন সেই ছবি ও ভিডিও। 

প্রসঙ্গত, ‘অ্যা দিল হ্যা মুশকিল’-এর পর আবার নিজের পরিচালনায় ‘তখত’ ছবি নিয়ে আসতে চলেছেন করণ জোহর। ছবিটিতে দেখা যাবে রণবীর সিং,আলিয়া ভট্ট, ভিকি কৌশল, ভূমি পেডনেকার,অনিল কপূর ও করিনা কপূর খানকে। জানা গিয়েছে ২০১৯-এর ডিসেম্বরের মধ্যেই রিলিজ হয়ে যাবে ছবিটি।  

চেহারা নয়,অভিনয়ই যে শেষ কথা তা বলিউডে প্রমাণ করেছেন সুলু অর্থাৎ বিদ্যা বালন।  গত ২৩ বছরে ‘ডার্টি পিকচারে’-র সিল্ক স্মিতা হোক বা ‘পা’ এ অমিতাভ বচ্চনের মা,এমনকি রেডিওর আরজে কীভাবে সংসারও সামলাতে পারেন বুঝিয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী। কিন্তু জানেন কি এই দক্ষ অভিনেত্রীর বলিউডে পা রাখার আগে ছিলেন একেবারে মধ্যবিত্ত। খানিকটা আমার আপনাদের মত করেই চিনে নিন এই তারকাকে।

ছবি সৌজন্যে বলিউড লাইফ

ছবি সৌজন্যে বলিউড লাইফ

ছবি সৌজন্যে বলিউড লাইফ

ছবি সৌজন্যে বলিউড লাইফ

ছবি সৌজন্যে বলিউড লাইফ

ছবি সৌজন্যে বলিউড লাইফ

প্রসঙ্গত,বলিউডের পাশাপাশি দক্ষিণী ছবিতেও পা রেখে ফেলেছেন বিদ্যা। ইতিমধ্যেই তেলেগুতে রিলিজ হয়ে গিয়েছে বিদ্যা বালনের ডেব্যু ছবি ‘এন টি আর’। যেটি নন্দমুরি বালাকৃষ্ণ-এর বাবা এন টি রামা রাও-এর জীবনীকে ঘিরে তৈরি করা হয়েছে। যেখানে বিদ্যাকে দেখা যাবে এন টি আর-এর স্ত্রী বাসবতারকমের ভূমিকায়।

২০১৮ এ গুগল সার্চে প্রিয়া ছিলেন সব তারকাদের থেকে আগে। কে এই প্রিয়া প্রকাশ ভারিয়র? প্রশ্ন উঠলেই ভ্রু-ভঙ্গীর উদাহরণ দেন সকলে। মাত্র কয়েক সেগেন্ডের মুখাভঙ্গী বদলে দিয়েছিল তাঁর জীবন। শুধু গত বছর নয়,এবছরও নেট দুনিয়ায় ঝড় তোলেন এই দক্ষিণী অভিনেত্রী। তবে এইবার এমন কী করলেন প্রিয়া?   

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি আলো-আঁধারি ছবি পোস্ট করেন অভিনেত্রী। লাল টি শার্ট ও সাদা প্যান্ট পরিহিত প্রিয়ার হাতেও একগুচ্ছ আলো। এমন মোহময় পরিবেশে প্রিয়াকে দেখে মুগ্ধ নেটিজেনরা। পোস্টের পাঁচ ঘণ্টার মধ্যেই লাইক পৌঁছে যায় প্রায় তিন লক্ষে। ছবির ক্যাপশনে প্রিয়া লেখেন— ‘তোমাদের আলোতে আমি ভালবাসতে শিখি।

error: Content is protected !!