সম্পর্ক

Amiya Chakraborty

কবির চোখে দেশনায়ক

‘আমি সুভাষকে কখনো ভর্ৎসনা করিনি তা নয়, করেছি তার কারণ তাকে স্নেহ করি।… ব্যক্তিগতভাবে সুভাষকে আমি স্নেহ করি। বলেছিলেন রবীন্দ্রনাথ… পড়ুন পীতম সেনগুপ্তের কলাম।

Read More »
Two Brothers and a woman

একটা দিকচক্রবাল আর কয়েক টুকরো সূর্যাস্ত: ছোটগল্প

তিনদিন পর দাদার বাড়ি ফেরার কথা ছিল। ফেরেনি। বাড়ির মেন গেটে তালা দেবার দায়িত্ব আমার। বিছানায় উপুড় হয়ে হিমু সমগ্র পড়ছিলাম। বৌদির উপহার। জন্মদিনে। ‘আর আসবে না, তালাটা দিয়ে দাও।’ আমার উত্তরের অপেক্ষা না করেই দোতলায় চলে গেল বৌদি। দাদা কি তাহলে আর ফিরল না? অভিরূপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছোটগল্প। …

Read More »

বৃত্তান্তর: ছোটগল্প: শেষ পর্ব

সুচারু আর বরুণার নিটোল সংসারবৃত্ত থেকে আচমকাই ছিটকে গিয়েছিল সুচারু। অস্থির রাজনীতির ঘূর্ণির মধ্যে গা ভাসিয়ে অনেক দূরের পথে সরে গিয়েছিল সে। সে ঘূর্ণি একদিন থেমে গেল। সময়ের পলি পড়ে থিতিয়ে এল উত্তেজনা। সুচারুর ঘরে ফিরতে ইচ্ছে হল। কিন্তু পারল কী? লিখলেন স্নিগ্ধা সেন।

Read More »

বৃত্তান্তর: ছোটগল্প: পর্ব ৩

সুচারু আর বরুণার নিটোল সংসারবৃত্ত থেকে আচমকাই ছিটকে গিয়েছিল সুচারু। অস্থির রাজনীতির ঘূর্ণির মধ্যে গা ভাসিয়ে অনেক দূরের পথে সরে গিয়েছিল সে। সে ঘূর্ণি একদিন থেমে গেল। সময়ের পলি পড়ে থিতিয়ে এল উত্তেজনা। সুচারুর ঘরে ফিরতে ইচ্ছে হল। কিন্তু পারল কী? লিখলেন স্নিগ্ধা সেন।

Read More »

বৃত্তান্তর: ছোটগল্প: পর্ব ১

সুচারু আর বরুণার নিটোল সংসারবৃত্ত থেকে আচমকাই ছিটকে গিয়েছিল সুচারু। অস্থির রাজনীতির ঘূর্ণির মধ্যে গা ভাসিয়ে অনেক দূরের পথে সরে গিয়েছিল সে। সে ঘূর্ণি একদিন থেমে গেল। সময়ের পলি পড়ে থিতিয়ে এল উত্তেজনা। সুচারুর ঘরে ফিরতে ইচ্ছে হল। কিন্তু পারল কী? লিখলেন স্নিগ্ধা সেন।

Read More »
illustration by sankha karbhaumik

কিস্তি: ছোটগল্প

অ্যাক্সিডেন্ট হয়ে বর হাসপাতালে ভর্তি। মেয়েটাকে পড়শির ঘরে রেখে একমাসের দুধের ছেলে কোলে নিয়ে হাসপাতালে বসে থাকে অসহায় রুমকি। অনেক টাকা লাগবে বরের অপারেশন করাতে। কোথায় পাবে টাকা? ঋভু চট্টোপাধ্যায়ের গল্প….

Read More »

একটা নাটক: কবিতা

কিসের অহমিকায়, মাঝপথে রুদ্ধগতি নেমে আসে? অচল হয়ে যায় চতুর্দিক। কেন তুমি বড় নিশ্চুপ হয়ে দেখলে, দুরন্ত পবিত্রতায় ছেয়ে থাকা কবিতাও লেখা হল না আর।… শৌভিক চট্টোপাধ্যায়ের কবিতা।

Read More »
Short Story

পা (ছোটগল্প)

বিখ্যাত কবির স্ত্রী অদিতি এখন একা। প্রয়াত হয়েছেন কবি। একাকিনী স্ত্রীর দিন কাটে স্মৃতি আঁকড়ে। শুধু নিজের পা-দু’টিকে নিয়েই বড় উদ্বিগ্ন, বড় ব্য়তিব্যস্ত হয়ে থাকেন তিনি। কেন? কাবেরী রায়চৌধুরীর ছোটগল্প…

Read More »

ছায়াপথ পেরিয়ে (ছোটগল্প)

আসলে সিদ্ধান্তটা আমাদের দু’জনের। আমরা দু’জনেই তো ঠিক করেছিলাম। ভালবেসেছি, তাই ভালবাসাকে বাঁচিয়ে রাখব দু’জনে মিলে। সবাই যা করে, সেই বিয়ে বাচ্চা সংসার বাচ্চাকে ডাক্তার বানানো… না, এসব আমরা করব না। তাহলে সেই শেষ পর্যন্ত দু’টো কথাই থাকবে— অ্যাডজাস্টমেন্ট আর কম্প্রোমাইস… ভালোবাসা থাকবে না। খোলা ছাদে পাশাপাশি শুয়ে দু’জনে একসঙ্গে সন্ধেতারা ফুটে উঠতে দেখব না তখন।

Read More »
Suvranil Ghosh

একদা তুমি প্রিয়ে: আমি কি একেবারেই একা

গবেষণা আমাদের ক্রমান্বয়ে অবহিত করে চলেছে যে এই অভাববোধ এক বিপজ্জনক অসুস্থতার পূর্বাভাস। ডাক্তাররা বলছেন যারা নিজেদের একা বলে অনুভব করে একাধিক মারাত্মক উপসর্গের তারাই সাধারণত হয় প্রথম বলি।…

Read More »
Suvranil Ghosh

একদা তুমি প্রিয়ে: যখন ভাঙল

সম্পর্ক গড়ে, আবার ভেঙেও যায় নানা কারণে। কখনও তা ভৌগোলিক, কখনও মানসিক আবার কখনও বা নেহাতই স্বাভাবিক নিয়মে। সম্পর্কের সেই ভাঙাগড়ার আখ্যান লিখছেন মণীশ নন্দী।

Read More »
illustration

সম্পর্কের মন-মশলা

সম্পর্কের মন-মশলা নিয়ে মন্দার মুখোপাধ্যায়ের কথকতা। সম্পর্কের ঝাল-টাল, নুন-টুন, জিরে-মৌরির অনুপান কেমন করে জমিয়ে তোলে রসায়ন, তারই সরসবৃত্তান্ত!…

Read More »
Suvranil Ghosh

একদা তুমি প্রিয়ে: তুমি, আমি আর মিকেলাঞ্জেলো

নারী পুরুষ নির্বিশেষে আমরা সবাই স্বকীয় ও স্বাধীন। এটা নীতি হিসেবে ঘোষণা করা সহজ, কিন্তু রীতি হিসেবে আমাদের দৈনন্দিন জীবনে প্রতিফলিত করা তত সহজ নয়। …

Read More »
Episodic Novel Illustration ধারাবাহিক উপন্যাস

গোলকিপার (পর্ব ২১)

কুর্চি একবার ভাবল ফিরেই যাবে কিনা। তারপর নিজেকে বোঝাল, অনেক ভেবেচিন্তেই তো এখানে এসেছে সে। এখন ফিরেই বা যাবে কেন? একতলায় বসার ঘরে ঢুকে দেখল, খালি গলায় গাইছেন মানিনীদি আর বাবার সঙ্গে বসে একমনে গান শুনছেন নন্দিতাদিদা, সুচিরাপিসি আর সুশোভনজেঠু। কুর্চি যেদিক দিয়ে ঢুকল, তার উল্টো দিকে তাকিয়ে আছেন তাঁরা, মানিনীদির দিকে মুখ করে। চোখ বন্ধ করে গাইছিলেন মানিনী, গান শেষ হতে তিনিই প্রথম দেখতে পেলেন কুর্চিকে। বললেন, “ওই তো কুর্চি এসে গেছে।” সুজাত তাঁর সোফায় পাশের জায়গাটা দেখিয়ে বললেন, “আয়, বোস।”

Read More »

Member Login

Submit Your Content