বর্ষাকালের জন্য ৩টি ফেসপ্য়াক

257

বর্ষাকালের জন্য ৩টি ফেসপ্য়াক

বর্ষাকাল আসা মানেই বাতাসে আর্দ্রতা বেড়ে যায়। ত্বকেও এর প্রভাব পড়ে বই কী!হঠাৎ করেই আপনার মাখনমসৃণ ত্বকে দেখা দিতে পারে ব্রণ বা ফুসকুড়ি। অনেকের ত্বকে আবার লালচে ভাবও দেখা যায়। ত্বক জ্বালা করতে পারে। বিশেষ করে যাঁদের ত্বক খুবই নরম, তাঁদের আরও বেশি করে ত্বকের যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। এই সময়ে যতটা সম্ভব কম প্রসাধনী ব্য়বহার করাই ভাল। দিনে অন্তত ৮-১০ গ্লাস জল খাওয়া প্রয়োজন। এতে ত্বক ভাল থাকে।  প্রসঙ্গত বলব, যতটা সম্ভব খাদি বা সুতির পোশাক পরুন, তা হলে বর্ষাকালেও ত্বক স্বাস্থ্য়োজ্জ্বল রাখতে পারবেন।

এ বার আসি ত্বকের যত্নের ব্য়পারে। ঘরোয়া ফেসপ্য়াক এ ক্ষেত্রে খুবই কাজে আসতে পারে। ত্বকের যাবতীয় সমস্য়া তো দূরে থাকবেই, ত্বক সুন্দর ও উজ্জ্বল দেখাবে। আসুন দেখে নিই কোন কোন প্য়াক আপনি অনায়াসেই বাড়িতে বানাতে পারবেন:

জোজোবা অয়েল-দইয়ের ফেসপ্য়াক

দু’ টেবল চামচ জোজোবা অয়েল একটা বাটিতে নিয়ে তার সঙ্গে ২ টেবল চামচ টক দই আর ১ টেবল চামচ মধু  মিশিয়ে নিন। ভাল করে ফেটিয়ে নিন। মুখে ও গলায় লাগিয়ে নিন। ১০-১৫ মিনিট রাখুন। তার পর হালকা ফেসওয়াশ দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। শুষ্ক ত্বকের জন্য় এই প্য়াক খুবই উপকারী। মধু আর দইয়ের প্রাকৃতিক ময়শ্চারাইজিং গুণের কারণে ত্বকের ভেজাভাব বজায় থাকে।

চন্দন গুঁড়ো ও গোলাপ জলের ফেসপ্য়াক

একটা বাটিতে ২ টেবল চামচ চন্দন গুঁড়ো দিন। এতে আধ কাপ গোলাপ জল ও ১ টেবল চামচ হলুদগুঁড়ো মিশিয়ে নিন। ঘন হলে মুখে ভাল করে লাগিয়ে নিন। ২০-৩০ মিনিট পর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্য়াক ত্বকের দাগছোপ দূর করে, সঙ্গে ত্বকের হারিয়ে যাওয়া ঔজ্জ্বল্য় ফিরিয়ে আনে।

ওটমিল ফেস প্য়াক

৩ টেবল চামচ ওটমিলের সঙ্গে একটা ডিমের সাদা অংশ, ১ টেবলচামচ মধু এবং ২ টেবলচামচ টক দই মিশিয়ে নিন। ভাল করে মিশিয়ে ফ্রিজে রেখে দিন। ঠান্ডা হলে বার করে নিন। মুখ ধুয়ে সমান ভাবে লাগিয়ে নিন। ১০-১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.