দুর্জয় আশরাফুল ইসলামের দুটি কবিতা

দুর্জয় আশরাফুল ইসলামের দুটি কবিতা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
জংিহাত.মদস
ছবি সৌজন্যে pxfuel.com
ছবি সৌজন্যে pxfuel.com
ছবি সৌজন্যে pxfuel.com
ছবি সৌজন্যে pxfuel.com
ছবি সৌজন্যে pxfuel.com
ছবি সৌজন্যে pxfuel.com

বিনয় মজুমদার 

বাঙলা কবিতায় পুরস্কারের কথা যতবার উঠে
ততবারই আমি দেখি বিনয় মজুমদার
বয়সের ভারে নুয়ে পড়া দেহ তবুও চলছেন
চায়ের দোকানে কিংবা রেললাইনের ওপার
পুরস্কার তার দিকে হেঁটে আসছে, আর ক্যামেরা
চব্বিশ পরগনার ধর্মনগরে, কবিতার যিশু
যদি হাত ছুঁয়ে ধন্য করেন পুরস্কার প্রথাকে;

ছানি পড়া চোখ, টিমটিমে আলোর পৃথিবী,
কবি শুধু বললেন একটি কথা –
কবিতা আরও অনেক অনেক লেখা দরকার

অলোকরঞ্জন

আমি যারে ঈর্ষা করি তার নাম অলোকরঞ্জন
তিনি বুদ্ধপূর্ণিমার রাতে বেরিয়ে পড়েন
আর নিরীশ্বর পৃথিবীতে কাব্যি করেন। 
তিনি একাধারে প্রেমিক এবং পাখির ভাষা অনুবাদক
রক্ষিতার চরণমূলে রেখে বেড়ান গঙ্গাজল।

আমি তারে ঈর্ষা করি বিবিধ ঋতুর চক্রে
দিনান্তের সত্যি মতো সান্ধ্যপ্রদীপ যখন জ্বলে 
একার পৃথিবীতে যদি শোনাতে যাই কবিতাকীর্তন
দেখি আমার গলা ছিঁড়ে আসছে পাপে অনুতাপে।
আর তিনি দুঃখ পোশাক ছুঁড়ে ফেলে উদাস কণ্ঠে
এক পৃথিবীতে স্তব্ধতা নামিয়ে বেড়ান।

আমি যারে ঈর্ষা করি তার নাম অলোকরঞ্জন
কবিতার অধিক যিনি বাজান বাঁশি, খুঁজে বেড়ান হ্যামিলন

 

Tags

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

One Response

Leave a Reply