৪০,০০০ হিরে বসানো সোনার কমোড!

সোনা বলে সোনা! একেবারে সোনার কমোড। খানিকটা মুকুলের “সোনার কেল্লা!” বলার স্টাইলে বললে ব্যাপারটা জমছে। একেবারে সত্যি। গত সপ্তাহে সাংহাই বাণিজ্য মেলায় এমনই একটি আশ্চর্য বস্তু দেখা গিয়েছে। এবং বললে বিশ্বাস করা শক্ত যে সোনার কমোডটি শুধুমাত্র সোনা দিয়ে তৈরি নয়, তাতে খচিত ৪০,৮১৫ টি হিরে। লোকজন চক্ষু কপালে তুলেই ভিড় জমাচ্ছে দেখতে। কেবল সোনা বা হিরেই নয় এই মহার্ঘ্য বস্তুটির সিট বা বসার জায়গাটি বুলেট-প্রুফ! এটার উপযোগিতা সম্পর্কে যদিও কিছু জানা যায়নি।

গত ৫ নভেম্বর পিপলস’ ডেলি চায়না, টুইটারে এই ছবিটি শেয়ার করেছে। ছবিটির সঙ্গের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, ৪০,৮১৫টি হিরে খচিত ১২ লক্ষ মার্কিন ডলার মূল্যের এই সোনার কোমডটি প্রদর্শিত হচ্ছে দ্বিতীয় সিআইআইই, সাংহাই-এ।  

এই কমোডটি তৈরি করেছে করোনেট। করোনেট ব্র্যান্ডের প্রতিষ্ঠাতা আরন শাম এ-ও জানিয়েছেন যে কমোডটিকে তিনি ডায়মন্ড আর্ট মিউজ়িয়ামে রাখতে চান, যাতে এই বস্তুটির সৌন্দর্য সবাই উপভোগ করতে পারে (মানে আসলে, দেখে চক্ষু সার্থক করতে পারে আর কী!) এবং ঠারেঠোরে বুঝিয়েছেন যে, তাঁরা এই কমোডটি বিক্রি করতে অনিচ্ছুক।

শাম এই বিলাসবহুল কমোডটিকে গিনিজ় ওযার্ল্ড রেকর্ড প্রতিযোগিতার অংশ করে জয়ী হতে চাইছেন। ‘একটি কমোডে সবচেয়ে বেশি খোদিত হিরে’—এই বিভাগে গিনিজ় ওয়ার্ল্ড রেকর্ড গড়তে চাইছেন তিনি।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Please share your feedback

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nayak 1

মুখোমুখি বসিবার

মুখোমুখি— এই শব্দটা শুনলেই একটাই ছবি মনে ঝিকিয়ে ওঠে বারবার। সারা জীবন চেয়েছি মুখোমুখি কখনও বসলে যেন সেই কাঙ্ক্ষিতকেই পাই