অনিল কপূরকে সতেরোটা চড়!!!

2852

অনিল কপূর এক জন পার্ফেকশনিস্ট| মানে যত ক্ষণ না ছবির কোনও দৃশ্য মনের মতো হচ্ছে উনি বার বার সেই দৃশ্যের টেক দিতেই থাকেন| এমনই একটা ঘটনার সম্মুখীন হয়েছিলেন অভিনেতা জ্যাকি শ্রফ| বলিউডের ক্লাসিক ছবি ‘পরিন্দা’ তিরিশ বছর পূর্ণ করলো| বিধুবিনোদ চোপড়া পরিচালিত এই ছবি মুক্তি পেয়েছিল নভেম্বর ৩‚ ১৯৮৯ সালে| অনিল কপূর এবং জ্যাকি শর্ফ ছড়াও ছবির প্রধান চরিত্রে দেখা গেছিল নানা পটেকর আর মাধুরী দীক্ষিতকে|

While displays of affection are commonplace in Bollywood today, 30 years ago such scenes were few and far in between. Have a look at the trials and tribulations behind shooting one such scene. #30YearsOfParinda @MadhuriDixit @AnilKapoor @bindasbhidu #Parinda pic.twitter.com/4L3XCA5lir— Vidhu Vinod Chopra Films (@VVCFilms) 1 November 2019

‘পরিন্দা’-র তিরিশ বছর পূর্ণ হওয়ার আনন্দে ছবির পরিচালক সোশ্যাল মিডিয়াতে ছবিকে ঘিরে বিভিন্ন ঘটনার কথা উল্লেখ করেন| একই সঙ্গে ছবির বেশ কয়েকটা দৃশ্যও উনি শেয়ার করেছেন| তেমনই একটা ভিডিওতে ছবির প্রস্তুতকারক জানিয়েছেন অনিল কপূর এই ছবির একটা দৃশ্য একাধিকবার শ্যুট করেন| অবশেষে সতেরোবার শ্যুট করার পর ফাইনাল কাট পাওয়া যায়|

জ্যাকি শ্রফও ছবির শ্যুটিং চলাকালীন নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন| ওঁর কথায় ‘ এই ছবিতে অনিল কপূর আমার ভাইয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিল| একটা দৃশ্যে বড় দাদা রেগে গিয়ে চড় মারে ছোট ভাইকে| প্রথমবারেই দৃশ্যটা ওকে ছিল| কিন্তু অনিলের পছন্দ হল না| আমি ওকে আরও এক বার চড় মারলাম‚ তাতেও হল না| অবশেষে সতেরো বার চড় মারার পর ওই শট ওকে করা হল| প্রতি বারই আমাকে জোরে চড় মারতে হয়েছিল| কারণ নকল চড় মারলে আবার অনিল ঠিক মতো এক্সপ্রেশন দিতে পারছিল না|
জাত অভিনেতারা বোধ হয় এ রকমই হন।

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.