নিশ্ছিদ্র ঘুমের মুশকিল আসান টিপস্

নিশ্ছিদ্র ঘুমের মুশকিল আসান টিপস্

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

আধুনিক শহুরে জীবনে যথেষ্ট ঘুমের অভাব অনেকের কাছেই বড় সমস্যা হয়ে উঠেছে। কাজের চাপ এবং শরীরচর্চার অভাব এবং ডিজিটাল মিডিয়ার আসক্তিও একটা বড় সংখ্যক মানুষের ঘুমের ওপর প্রভাব ফেলেছে। অথচ ঠিকঠাক ঘুম না হলে হজমের গোলমাল, চোখের তলায় কালি পড়ার মতো সমস্যা দেখা দেবে। কমে যাবে কর্মক্ষমতা। তবে এই  সমস্যা গভীর হলেও, এর সমাধানের উপায়ও কিন্তু রয়েছে হাতের নাগালের মধ্যেই।

চট করে জেনে নিন কোন সাতটি খাঁটি ভারতীয় পানীয় আপানাকে দিতে পারে নিশ্ছিদ্র নির্ভার ঘুম।

১. ক্যামোমোইল চা – ক্যামেোমাইল ফুলের নির্যাস থেকে তৈরি চা নাকি সহজে ঘুম আসতে সাহায্য করে। রাতে খাওয়ার পরে এক কাপ ক্যামোমাইল চা খান। ঘুম নিয়ে আর দুশ্চিন্তা করতে হবে না।

২. ইষোদুষ্ণ দুধ খান – দুধে রয়েছে ট্রিপটোফান যা দেহের সেরোটোনিন বাড়িয়ে দেয় এবং ঘুম আসতে সাহায্য করে। এক কাপ দুধ সামান্য গরম করে খেলে ঘুম আসবে তাড়াতাড়ি।

৩. অশ্বগন্ধা চা – অশ্বগন্ধা চায়ে রয়েছে ট্রাইথাইলিন গ্লাইকল, বিশেষজ্ঞদের মতে, যা ঘুম আসার পক্ষে প্রচন্ড উপকারি।

৪. হলুদ দুধ – দুধ, হলুদ, দারচিনি, ছোট এলাচ এবং মধুর এই মিশ্রণ ঘুম আসার অব্যর্থ  ওষুধ। খুব সহজেই রান্নাঘরের কিছু উপকরণ দিয়েই তৈরি করে ফেলা যায় এই জাদু পানীয়।

৫. পাকা কলার স্মুদি – পাকা কলা আর সামান্য দুধ ব্লেন্ডারে মিশিয়ে বানিয়ে ফেলুন স্মুদি। এই স্বাস্হ্যকর পানীয় আপনার দেহকে ঘুমের জন্য তৈরি করবে।

৬. ক্যাফেন বিহীন গ্রিন টি – ক্যাফেন ঘুমের শত্রু হিসেবে পরিচিত। তাই ঘুম আসার জন্য পান করুন গ্রিন টি। এতে থাকা থিএনাইন অ্যামাইনো অ্যাসিড ঘুমের জন্য উপকীরি।

৭. লেবু আর পুদিনার পানীয় – পাতিলেবুর খোসা আর পুদিনা পাতা ফুটিয়ে তৈরি করে ফেলুন এই সুগন্ধী পানীয়। এতে আপনার স্ট্রেস দূর হবে আর ঘুমও আসবে সহজে।

এই পানীয়গুলো সেবন করলে তো ঘুম আসবেই তবে সেইসঙ্গে লিয়মিত শরীরচর্চা করাও জরুরি। তাতে আপনার রক্ত সঞ্চালন ঠিক থাকবে, কমবে স্নায়ুর চাপ আর শরীরের নিয়ম মেনেই আসবে ঘুমও।

সূত্র: হেলথশটস্

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

pandit ravishankar

বিশ্বজন মোহিছে

রবিশঙ্কর আজীবন ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের প্রতি থেকেছেন শ্রদ্ধাশীল। আর বারে বারে পাশ্চাত্যের উপযোগী করে তাকে পরিবেশন করেছেন। আবার জাপানি সঙ্গীতের সঙ্গে তাকে মিলিয়েও, দুই দেশের বাদ্যযন্ত্রের সম্মিলিত ব্যবহার করে নিরীক্ষা করেছেন। সারাক্ষণ, সব শুচিবায়ু ভেঙে, তিনি মেলানোর, মেশানোর, চেষ্টার, কৌতূহলের রাজ্যের বাসিন্দা হতে চেয়েছেন। এই প্রাণশক্তি আর প্রতিভার মিশ্রণেই, তিনি বিদেশের কাছে ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের মুখ। আর ভারতের কাছে, পাশ্চাত্যের জৌলুসযুক্ত তারকা।